সাতক্ষীরার দেবহাটায় দশম শ্রেণির ছাত্রীকে হত্যা !


975 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার দেবহাটায় দশম শ্রেণির ছাত্রীকে হত্যা !
সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

॥ আর কে বাপ্পা ॥

সাতক্ষীরার দেবহাটায় ১০ম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীর রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকালে উপজেলার টিকেট গ্রামের তারক মন্ডলের সবজি বাগান থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
নিহত স্কুল ছাত্রীর নাম পূর্ণিমা দাস (১৫)। সে টিকেট গ্রামের শান্তি রঞ্জন দাসের কন্যা ও গাভা একেএম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ শ্রেণির ছাত্রী।
নিহত স্কুল ছাত্রীর পিতা শান্তি রঞ্জন বলেন, পুর্ণিমা বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রাইভেট পড়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফেরেনি। ধারনা করা হচ্ছে কেউ তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে পাশ্ববর্তী তারক মন্ডলের সবজি বাগানে নিয়ে ধর্ষণের পর হত্যা করেছে।
নিহতের বাবা শান্তি রঞ্জন দাস আরও জানান, পাশ্ববর্তী এলাকার শিবু মন্ডলের ছেলে পার্থ মন্ডল দীর্ঘদিন ধরে তার মেয়েকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে উত্যক্ত করে আসছিল। বখাটে পার্থ মন্ডলই তার মেয়েকে দেখা করার কথা বলে মোবাইলের মাধ্যমে বাড়ি থেকে ডেকে ধর্ষণের পর হত্যা করেছে বলে তারা ধারনা করছেন। বখাটে পার্থ মন্ডলের সাথে তার অন্য সহযোগীরা জড়িত থাকতে পারে বলেও তারা ধারনা তাদের।
এ ব্যাপারে পার্থ মন্ডলের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি। ঘটনার পর থেকে সে পলাতক। তবে পার্থ মন্ডলের পিতা শিবু মন্ডল বলেন, আমার ছেলেকে ফাঁসানোর জন্য এ ধরনের অভিযোগ করা হচ্ছে। ওই পরিবারের সাথে আগে থেকেই আমাদের বিরোধ। ওই বিরোধের জের ধরে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। সঠিক দতন্ত দাবি করেন শিবু মন্ডল।
দেবহাটা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ফরিদ আহমেদ জানান, প্রেমঘটিত কারনে তার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। তিনি আরো জানান, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের গায়ে একাধিক জখমের চিহ্ন রয়েছে। হত্যাকারীদের সনাক্তের চেষ্টা চলছে। তবে কাউকে এখনো গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। একাধিক ক্লুনিয়ে পুলিশ মাঠে নেমেছে।

#