সাতক্ষীরার নবারন বালিকা বিদ্যালয়ে বাল্য বিবাহের উপর নাটক “মনিমুক্তা”


890 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার নবারন বালিকা বিদ্যালয়ে বাল্য বিবাহের উপর নাটক “মনিমুক্তা”
আগস্ট ১৮, ২০১৬ ফটো গ্যালারি শিক্ষা
Print Friendly, PDF & Email

রাহাত রাজা :
শহরের নবারন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে বাল্য বিবাহের উপর সচেতনতামূলক নাটক মনিমুক্তা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দীপালোক একাডেমীর আয়োজনে ও বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনায় বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে নাটকটি অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ্ আব্দুল সাদী। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কহিনুর বেগম, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুল মালেক গাজী, শিক্ষক সেলিমুল ইসলাম, নাজমুল লায়লা, সাবিনা শারমিন, তৈয়েবুর রহমান, ফারুক হোসেন, কবির আহম্মেদ, এমএম নওরদ, সিরাজুল ইসলাম, শামীম পারভেজ, জাহিদ হোসেন, দীপালোক একাডেমীর পরিচালক সাংবাদিক বরুণ ব্যানার্জী, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ আব্দুল সাদী বলেন, বাল্য বিবাহকে ইতিমধ্যে সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় লাল কার্ড প্রদান করা হয়েছে। মেয়েদের বাল্য বিবাহের প্রতি নিরুৎসাহিত করতে এমন সচেতনতামূলক নাটক ভূমিকা রাখবে।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মালেক গাজী বলেন, আমাদের সমাজে বাল্য বিবাহের প্রবণতা এখনও কিছুটা রয়ে গেছে। নাটকের মাধ্যমে বাল্য বিবাহের কুফলটা শিক্ষার্থীদের বোঝানো গেলে তারা বাল্য বিবাহের প্রতি নিরুৎসাহিত হবে এবং বাল্য বিবাহের প্রবণতা অনেকাংশে কমবে।

####

সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে শপথ বাক্য পাঠ
আসাদুজ্জামান :
সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের রেডকার্ড টিমের বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে কাজ করার জন্য শপথ বাক্য পাঠ করানো হয়েছে। সদর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় আগড়দাড়ি ও ঝাউডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদে ব্যতিক্রম ধর্মী এই অনুষ্ঠানের উদ্ধোধন করেন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ আব্দুল সাদি। এ সময় প্রতিটি কমিটির সদস্যরা নিজ নিজ এলাকায় ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বাল্যবিবাহ বন্ধে একযোগে কাজ করার অঙ্গিকার করেন। সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের আট’শ জন রেড কার্ড টিমকে প্রথম পর্বে এ শপথ বাক্য পাঠ করানো হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনুর ইসলাম, ঝাউডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান আজমল হোসেন, আগরদাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মজনুর রহমান,  ইউপি সদস্য, মুক্তিযোদ্ধা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। ##