সাতক্ষীরার প্রাণ সায়ের খালের প্রাণ ফিরিয়ে আনতে চলছে উচ্ছেদ অভিযান


648 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার প্রাণ সায়ের খালের প্রাণ ফিরিয়ে আনতে চলছে উচ্ছেদ অভিযান
আগস্ট ২, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

এম কামরুজ্জামান :
সাতক্ষীরাবাসীর দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবী ছিলো জেলা শহরের ঠিক মাঝ দিয়ে প্রবাহিত প্রাণ সায়ের খালের দু’ধার শোভাবন্ধন ও দৃষ্টিনন্দন করে গড়ে তোলা। কিন্তু অর্থের অভাব, প্রভাবশালী দখলদারদের উচ্ছেদসহ সংশ্লিষ্টদের নতজানু মনোভাবের কারনে এতোদিন সে-টি হয়ে উঠেনি। দিন দিন দখলদারদের কালোথাবায় প্রাণ সায়ের খাল যেনো প্রাণ হারিয়ে স্মৃতির পাতা থেকে হারিয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছিল।

কিন্তু আশার কথা হলো, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল যেদিন সাতক্ষীরাতে যোগদান করেন ঠিক সেদিনই প্রাণ সায়ের খালের করুণ চিত্র তার চোখে পড়ে। তিনি জেলা ম্যাজিস্টেটের দায়িত্ব নিয়েই সাতক্ষীরার সিনিয়র সাংবাদিকসহ সুশিলসমাজের নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে প্রাণ সায়ের খালের একপ্রান্ত থেকে অপর প্রান্ত পর্যন্ত পদযাত্রা শুরু করেন। অবৈধ দখল আর খালের নোংড়া পরিবেশ দেখে তিনি রিতিমতো হতবাক হন। জেলা প্রশাসক পরিকল্পনা করতে থাকেন কি ভাবে প্রাণ সায়ের খালের প্রাণ আবারও ফিরিয়ে দেওয়্ াযায়। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামালের সেই উদ্যোগের অংশ হিসেবে গত পহেলা আগষ্ট বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে প্রাণ সায়ের খালের দু’ধারের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের কাজ।

বৃহস্পতিবার প্রথম দিনে প্রাণ সায়ের খালের পশ্চিমপাশে কাটিয়া ব্রীজ থেকে শুরু করে তোফান কোম্পানির মোড় পর্যন্ত উচ্ছেদ অভিযান চলে।

শুক্রবার দ্বিতীয় দিনের মত প্রানসায়ের খালের পূর্বপাশে অর্থাৎ স্টেডিয়াম ব্রীজ এলাকা থেকে পাকাপুলের মাথা পর্যন্ত উচ্ছেদ অভিযান চলেছে।

অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে একাধিক নির্বাহী ম্যাজিস্টেট, পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনীর সদস্যরা অংশ নিচ্ছেন। বুলড্রেজার মেশিন আর শতাধিক শ্রমিক লোহার হাতুড়ি হাতে নিয়ে উচ্ছেদ কাজে নেমে পড়েছে।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমকে বলেন, প্রাণসায়ের খাল সম্পুর্ণ অবৈধ দখলমুক্ত না হওয়া পর্যন্ত এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। তিনি বলেন, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য পরিকল্পিত, দৃষ্টিনন্দন ও আধুনিক সাতক্ষীরা শহর গড়ার লক্ষ্যে আমরা কাজ শুরু করেছি। অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শেষ হওয়ার সাথে সাথে সাতক্ষীরা প্রাণ সায়ের খালের দু’ধারে কেএফডব্লউ প্রকল্পের আওতায় দৃষ্টিনন্দন কাজ শুরু হবে। ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ হয়েছে, এই প্রকল্পের সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন। তিনি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ কাজে সাতক্ষীরার সর্ব মহলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

সাতক্ষীরায় অবৈধ স্থাপনা স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামাল এ উচ্ছেদ অভিযানে নেতৃত্ব দেন। শহরের মাঝ দিয়ে প্রবাহিত প্রাণ সায়ের খালের দুই পাড়ে এই উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হয়। এ সময় সেখানে আরো উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু সাঈদ, সদর ভুমি কর্মকতা নুর আলম রনি, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সজল মোল্যা, মুরশিদা পারভীন, জেলা তথ্য অফিসার মোজাম্মেল হকসহ বিভিন্ন আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘদিন ধরে সাতক্ষীরাবাসী প্রাণ সায়র খালের দু’ধারের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে খালের প্রবাহ ফিরিয়ে আনা এবং সৌন্দর্য বর্ধনের দাবি জানিয়ে আসছিল। সর্বশেষ গত ২৫ জুলাই জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামাল পহেলা আগস্ট হতে প্রাণ সায়ের খালের দু’ধারের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান চালানোর ঘোষণা দেন। এরই ধারাবাহিকতায় গত বুধবার সন্ধ্যা থেকে সাতক্ষীরা শহরে মাইকিং করে জানিয়ে দেওয়া হয় প্রাণ সায়ের খালের দু’ধারে যাদের অবৈধ স্থাপনা রয়েছে তারা যেন নিজ দায়িত্বে এসকল স্থাপনা সরিয়ে নেন।