সাতক্ষীরার ফিংড়ীতে আবার ও ভরাট হচ্ছে মরিচ্চাপ নদী


3570 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার ফিংড়ীতে আবার ও ভরাট হচ্ছে মরিচ্চাপ নদী
অক্টোবর ৩১, ২০১৮ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

আবু ছালেক ::

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ফিংড়ী ইউনিয়নের দক্ষীন পশ্চিম পাশ দিয়ে প্রবাহিত মরিচ্চাপ নদী ভরাট হচ্ছে আবারো।প্রত্যহ বেশ কিছু লোকজন মরিচ্চাপ নদীতে মাটি ভরাট দিয়ে তাদের জমির সিমানা বাড়াচ্ছে ফলে ভরাট হচ্ছে নদী।
যে নদী দিয়ে একদিন লঞ্চ,স্টিমার চলত আজ সেই নদি আর নদী নেই।দখল করতে করতে নদী শেষ হয়ে গেছে।বাংলাদেশ থেকে মুছে যাচ্ছে মরিচ্চাপ নদীর নাম।

বিগত কয়েক বছর পূর্বে আব্দুস ছামাদ সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক থাকা কালিন নিজ প্রচেষ্টায় সাতক্ষীরার সকল উপজেলা পরিষদ ইউনিয়ন পরিষদের সহযোগিতায় কর্মশৃজন কর্মসূচির শ্রমিক দিয়ে খনন করেছিল মরিচ্চাপ নদী।ফলে জলাবদ্ধতার কবল থেকে মুক্তি পেয়েছিল এলাকাবাসি কিন্তু আবার ও অবৈধভাবে নদী দখলের জন্য বিলিন হয়ে যাচ্ছে মরিচ্চাপ নদী।নদির কোথাও ৩ হাত আবার কোথাও ১/২ হাত রয়েছে এমন ভাবে দখল হতে থাকলে খুব শিঘ্রই মরিচ্চাপ নদীর চিহ্ন আর পাওয়া যাবেনা।ফলে জলাবদ্ধতার কবলে পড়ে সকলকে কাটাতে হবে অর্ধাহারে অনাহারে।

নদীমাতৃক এই বাংলাদেশের সৃষ্টি হয়েছিল হিমালয় থেকে ছুটে আসা অসংখ্য নদ-নদীর প্রবাহ থেকে। যে প্রবাহের সাথে বহমান বিন্দু বিন্দু পলিমাটি হাজার হাজার বছর ধরে গড়ে তুলেছিল পৃথিবীর বৃহত্তম এই ব-দ্বীপ। এ দেশের মানুষের জীবন-জীবিকা সবকিছুতেই রয়েছে নদীর প্রভাব। একসময় এই নদীর বুকেই ভেসে গিয়েছে বড় বড় বানিজ্যিক জাহাজ। নদীর পাড়ে মানুষের জীবন-জীবিকা নিয়ে তৈরী হয়েছে গান, কবিতা, উপন্যাস ও চলচ্চিত্র। মুলত তিব্বতী ভাষায় বঙ্গ অর্থ ভেজা। আবার বাংলায় বঙ্গ শব্দটি বহন এবং ভাঙ্গার সাথে জড়িত। তাই বঙ্গ একসাথে বহন করে উপরের পানি ও পলিমাটি আবার সেটা বিভিন্ন পথে ভাঙ্গনের সৃষ্টি করে। তাই এ দেশের অন্য নাম হল বঙ্গ দেশ। তবে সেসব এখন অতীত। বাংলাদেশ এখন নদী বিপর্যয়ের দেশ। দেশের আড়াই শতাধিক ঐতিহ্যবাহী, নান্দনিক নদ নদী মরে গেছে। অনেকগুলো বেদখল হয়েছে। অস্তিত্ব বিপন্ন হয়েছে। এভাবেই দেশের প্রায় ৯৯% নদী তাদের নাব্যতা, গভীরতা, আকার আকৃতি হারাচ্ছে। বিপর্যস্ত হচ্ছে পরিবেশ। হারিয়ে যাচ্ছে ঐতিহ্য।

তাই দ্রত সকল অবৈধ দখল কারিদের উচ্ছেদসহ আবার ও মরিচ্চাপ নদী খনন করার জন্য ফিংড়ীর সচেতন মহল উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।