সাতক্ষীরার ফিংড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাউন্সিল নির্বাচন


686 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার ফিংড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাউন্সিল নির্বাচন
ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১৯ ফটো গ্যালারি শিক্ষা
Print Friendly, PDF & Email

আবুছালেক :
সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ফিংড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কাউন্সিলার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করে লিফলেট, পোস্টার, ক্যাম্পেইন সবই হয়েছে। স্কুল-ঘরে জাতীয় নির্বাচনের কৌশল অবলম্বন করে বসানো হয়েছে গোপন বুথ। ব্যালট বাক্স, ব্যালট পেপার ছাপানো হয়েছে প্রার্থীদের নামে নামে। নির্ধারিত সময়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গেটে ভোটাররা দাঁড়িয়েছে লম্বা লাইনে। এভাবেই ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে যারা ভোট দিতে দাঁড়িয়েছে তারা বিদ্যালয়েরই তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রী।এসব ক্ষুদে ভোটারদের ভোটেই নির্বাচিত হবে স্টুডেন্ট কাউন্সিলের সাত প্রতিনিধি।বুধবার সকালে ফিংড়ীর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা গেছে, ক্ষুদে ভোটারদের ভোটগ্রহণের জন্য ব্যাপক আয়োজন করা হয়েছে। এজন্য আগে থেকেই নিয়োগ দেওয়া হয়েছে নির্বাচনী প্রিজাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসার সবই। ফিংড়ীর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচন। এতে বিদ্যালয়ে শিশুদের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত হবে সাতজন কাউন্সিলর। এ সাত কাউন্সিলরের নেতৃত্বেই স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীরা পরবর্তীকালে তাদের বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনা করবেন।ফিংড়ীর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী। তৌফিক, অমই বাছাড়, রাহুল দাস, তাছনিয়া আন্জুম, সাব্বির হোসেন,তিথি ঘোষ, সহ একাধিক শিক্ষার্থী জানান, বড়দের মতো তারাও নির্বাচনের মাধ্যমে ভোট দিয়ে প্রতিনিধি নির্বাচন করছে। এ প্রতিনিধিরাই স্কুলে তাদের সুবিধা-অসুবিধার দেখবে, ভাল করবে। জীবনের প্রথম ভোট দিতে পেরে তারা খুবই খুশি। ।মোট ভোটার ১০৪জন প্রার্থী ১০জন এর ভিতর ৭৪ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন,শাহরিয়ার সাবিত।সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন,সহকারি শিক্ষক মোঃআসাদুজ্জামান, বুধবার সকাল ৯টা থেকে একটানা দুপুর ১টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলে। এসব নির্বাচন যারা নির্বাচিত হয়েছেন তারা বিদ্যালয়ের শিক্ষার মান্নোয়ন, পরিবেশ সংরক্ষণ, পুস্তক, স্বাস্থ্য, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি, বিদ্যালয়ের আঙ্গিনায় বাগান তৈরিসহ বিভিন্ন গঠনমূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করবেন। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। বিদ্যালয়ের তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণীর কোমলমতি শিক্ষার্থীরা এ নির্বাচনে প্রার্থী ও ভোটার ছিল, শ্রেণী ভিত্তিক সর্বোচ্চ ভোট প্রাপ্ত ২ জন করে মোট ৭ জন প্রার্থী নির্বাচনে জয়লাভ করে। নির্বাচনে প্রতি বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে থেকে নির্বাচন কমিশনার, প্রিজাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসার, নির্বাচনী এজেন্ট নিয়োগ করা হয়। শিক্ষক-শিক্ষিকারা নির্বাচনে সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন। সকাল থেকে ভোটাররা লাইন ধরে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট প্রদান করে। , শিশু কাল থেকে গণতন্ত্রের চর্চা, গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া, অন্যের মতামতের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন, শিখন শিখানো পদ্ধতিতে সহায়তা করা, ছাত্র ভর্তি ও ঝরা রোধে সহযোগিতা করা, বিদ্যালয়ের পরিবেশ উন্নয়নে শিক্ষার্থীকে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করাই এ নির্বাচনের লক্ষ্য।, ব্যতিক্রমী এই নির্বাচনে ছাত্র-ছাত্রীরাই ভোটার। তারাই প্রার্থী এবং নির্বাচনের সব দায়িত্ব পালন করে।