সাতক্ষীরার বাকালে জমি জবরদখলের অপচেষ্টার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন


290 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার বাকালে জমি জবরদখলের অপচেষ্টার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন
জানুয়ারি ১৬, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
সাতক্ষীরা শহরের বাকাল এলাকায় ক্রয়কৃত জমি জবরদখলের অপচেষ্টার অভিযোগ তুলেছেন ক্রেতারা। শনিবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এই অভিযোগ করেন জমির মালিকেরা। একই সাথে তারা এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
সংবাদ সম্মেলনে ওই জমির ১৪ জন মালিকের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বাকাল দৌলতপুরের মানিক আলীর ছেলে মো. মুজিবর রহমান।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমাদের সাতক্ষীরা শহরের পলাশপোল মৌজার ১৩৫৭৮ ও ১৩৫৮২ দাগে সাড়ে ৮৪ শতক জমি রয়েছে। যা আমিসহ মুনজিতপুরের মৃত দীন মোহাম্মদ সরদারের ছেলে একেএম মুনসুর রহমান, ইটাগাছার রহিম বক্সের ছেলে সিরাজুল ইসলাম, এন্তাজ আলীর ছেলে আ: সবুর, কালু মোল্যার ছেলে ইশারাত মোল্যা, কুখরালীর নুরুল আমিন, শশাডাঙ্গার ছাকাত আলী, মরহুম আব্দুল জব্বার বিশ্বাসের ছেলে মাওলানা গফফার, আব্দুস ছাত্তার, আব্দুল হান্নান, পুরাতন সাতক্ষীরার শফিউর রহমান, ইটাগাছার বাবুর আলী সরদার, কামালনগরের রমেছা খাতুন ও নুর মোহাম্মদ মিলে বাকালের ছহির উদ্দিনের মেয়ে রহিমন খাতুন দিগরের কাছ থেকে ক্রয় করি।
কিন্তু সম্প্রতি রহিমন খাতুন দিগরের ভাইজি জবেদা খাতুন, তার মেয়ে সুখজান আরা ময়না ও মেয়ে জামাই সাইদুল ইসলাম রাজু পরস্পর যোগসাজশে ওই জমি জবর দখলের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে সুখজান আরা ময়না সম্প্রতি ওই জমিতে ঘর বানানোর পায়তারা করছে। একইভাবে জবেদা খাতুন তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে আমাদেরকে হত্যা করার হুমকি-ধামকি দিচ্ছে।
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আমরা জমি ক্রয়ের পর স্ব স্ব নামে নামপত্তন, চলমান জরিপে রেকর্ড ও ১৪২২ সন পর্যন্ত যাবতীয় খাজনা পরিশোধ করেছি। কিন্তু জমি দখলের জন্য জবেদা খাতুন মিথ্যা ও বানোয়াট প্রপাগান্ডা চালাচ্ছে। প্রকাশ্যে আমাদের নামে নারী নির্যাতনসহ মিথ্যা মামলা দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন- জমির ক্রেতা একেএম মুনসুর রহমান, সিরাজুল ইসলাম, আব্দুল হান্নান, শফিকুর রহমান, ইশারাত আলী প্রমুখ। ##