সাতক্ষীরার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সন্ত্রাস বিরোধী মানববন্ধনে জঙ্গিদের রুখে দেওয়ার আহবান


854 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সন্ত্রাস বিরোধী মানববন্ধনে জঙ্গিদের রুখে দেওয়ার আহবান
আগস্ট ১, ২০১৬ ফটো গ্যালারি শিক্ষা
Print Friendly, PDF & Email

 

আব্দুর রহমান :
সাতক্ষীরায় বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি কলেজ, মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও মাদ্রাসায় সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। সোমবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত স্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে এসব কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। এসময় সকল শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা জঙ্গিবাদ বিরোধী ব্যানার, ফেস্টুন ও জঙ্গিবাদ বিরোধী প্লাকার্ড নিয়ে প্রতিবাদ জানান। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনের সমাবেশ ও মানববন্ধনে স্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানসহ শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা বক্তব্য রাখেন। নিচে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কর্মসূচি তুলে ধরা হলো।

ছফুরননেছা মহিলা কলেজ :
ছফুরননেছা মহিলা কলেজের সামনে সকাল ১১টায় সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের প্রতিবাদে ঘন্টাব্যাপি মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়। কলেজের অধ্যক্ষ আশরাফুন্নাহারের সভাপতিত্বে কলেজের সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।শিক্ষকদের মধ্যে অংশ গ্রহন করেন, সেলিনা সুলতানা, কল্যান ঘোষ, প্রদীপ কুমার, ফজলুল রহমান, শিখা রাহা, শাহাদাৎ হোসেন, সেলিম আক্তার, অহেদুল ইসলাম, তৌহিদা পারভিন, পম্পা চক্রবর্তী, আবউল লতিফ, মোবাশ্বেরুল হক জ্যোতি প্রমুখ।

সাতক্ষীরা সিটি কলেজ :
সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সাতক্ষীরা সিটি কলেজ। সোমবার কলেজের সামনে কলেজের অধ্যক্ষ মো. আবু সাঈদের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সিনিয়র শিক্ষক আজিবর রহমান, মো. ইউনুচ আলী, কৃষ্ণপদ সরকার, জাহাঙ্গীর  আলম বাপ্পী, শফিউল আলম, জাকির হোসেন প্রমুখ।

সাতক্ষীরা দিবা নৈশ কলেজ :
সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সাতক্ষীরা দিবা নৈশ কলেজ।  সোমবার কলেজের সামনে কলেজের অধ্যক্ষ এ.কে.এম সফিকুজ্জামানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন কলেজের উপাধ্যক্ষ মো. ময়নুল হাসান ও ক্রীড়া শিক্ষক ফিফা রেফারী তৈয়েব হাসান বাবু প্রমুখ।

সাতক্ষীরা আহ্ছানিয়া মিশন আদর্শ আলিম মাদ্রাসা :
সাতক্ষীরা আহ্ছানিয়া মিশন আদর্শ আলিম মাদ্রাসায় জঙ্গী ও সন্ত্রাস প্রতিরোধে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল মজিদের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা আহ্ছানিয়া মিশনের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব শেখ আজিজুল হক, সহ সভাপতি শেখ তৌহিদুর রহমান ডাবলু, কার্যনির্বাহী সদস্য মোঃ আব্দুর রহমান, উপাধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল হামিদ আজাদী, আহ্ছানিয়া মিশন জামে মসজিদের পেশ ইমাম ও খতিব হাফেজ মাওলানা জাহাঙ্গীর আলম জিয়া, প্রভাষক আনোয়ারুল ইসলাম, প্রভাষক মনিরুল ইসলাম, প্রভাষক নূর আহম্মাদ, প্রভাষক রেজাউল করিম, সহকারী শিক্ষক শহিদুল আলম, শহিদুল ইসলাম,  আব্দুল করিম, আবুল বাশার, মিজানুর রহমান, শিক্ষক সাইফুল আলম ছিদ্দিকী প্রমুখ। এসময় মাদ্রাসার শিক্ষক, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও ২শতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় :
সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। সোমবার বিদ্যালয়ের সামনে স্কুলের প্রধান শিক্ষক এস.এম. আব্দুল্লাহ আল- মামুনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সহকারি প্রধান শিক্ষক সামিমা ইসমত আরা, সিনিয়র শিক্ষক অলোক কুমার তরফদার, ইয়াহিয়া ইকবল, হাবিবা ও সোহেলী প্রমুখ।

সাতক্ষীরা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় :
সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সাতক্ষীরা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। সোমবার বিদ্যালয়ের সামনে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনোয়ারা খাতুনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সহকারি শিক্ষক সমরেশ কুমার দাশ, গাজী মোমিন উদ্দিন, সিরাজুল ইসলাম, রোকেয়া সুলতানা, শারমীন সুলতানা প্রমুখ।

সাতক্ষীরা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট  :
সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সাতক্ষীরা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট। সোমবার সাতক্ষীরা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের সামনে সাতক্ষীরা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী জি.এম আজিজুর রহমানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ড.এম.এম নজমুল হক, অলোক সরকার, বিপ্লব কুমার দাস, ফারুক হোসেন, এনামুল হাসান ও সিদ্দিক আলী প্রমুখ।

সাতক্ষীরা সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ :
সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সাতক্ষীরা সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ। সোমবার সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের সামনে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন চীফ ইন্সট্রাক্টর মুহাম্মদ ফেরদৌস আরেফীন, ইন্সট্রাক্টর মো. আনিসুর রহমান, ইন্সট্রাক্টর রঞ্জন কুমার সরকার, ইন্সট্রাক্টর মো. আবুল কালাম আজাদ, ইন্সট্রাক্টর মোস্তফা বাকী বিল্লাহ, ও ইন্সট্রাক্টর মো. সফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

সাতক্ষীরা টাউন গালস স্কুল :
সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সাতক্ষীরা টাউন গালস স্কুল। সোমবার বিদ্যালয়ের সামনে সাতক্ষীরা টাউন গালস স্কুল পরিচালনা পরিষদের সভাপতি আলমগীর কবিরের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাছরিন বানু, সহকারি প্রধান শিক্ষক অসীম কুমার মন্ডল, সোলাইমান উদ্দিন, শেখ আলমগীর হোসেন, সিদ্দিকুজ্জামান, লক্ষী দত্ত, মাছুমা আক্তার প্রমুখ।

সাতক্ষীরা নবারুন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় :
সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সাতক্ষীরা নবারুন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়। সোমবার বিদ্যালয়ের সামনে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মালেক গাজীর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সহকারি প্রধান শিক্ষক মো. সেলিমুল ইসলাম, শিক্ষক নাজমুল লায়লা, আক্তারুজ্জামান, মো. ফারুক হোসেন, মো. তৈবুর রহমান ও মো. কবির আহম্মেদ প্রমুখ।

নবজীবন ইনস্টিটিউটের উদ্দোগে জঙ্গী ও সন্ত্রাসবাদ বিরোধী  মানববন্ধন :
দেশব্যাাপী জঙ্গী ও সন্ত্রাসবাদ বিরোধী এবং সাধারন জনগনকে সচেতনতা করার লক্ষনিয়ে সরকারী কর্মসুচির অংশ হিসাবে সাতক্ষীরা নবজীবন ইনস্টিটিউটের ছাত্র-ছাত্রীরা গতকাল সোমবার সকাল ১১ টায় শহরের জর্জকোট সংলগ্ন প্রধান সড়কে জঙ্গী ও সন্ত্রাসবাদ বিরোধী  মানববন্ধন করে। এসময় সাতক্ষীরা নবজীবন ইনস্টিটিউটের ছাত্র-ছাত্রীরা,শিক্ষক ও কর্মকর্তারা   মানববন্ধনে অংশ নেন। তারা ব্যানার সহকারে প্রায়  আধা ঘন্টা কাল ব্যাপী সুশৃঙ্খল ও সারিবদ্ধভাবে মানববন্ধনে দাড়িয়ে সাধারন জনগনকে উব্দুদ্ধ করেন। মানববন্ধনে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন নবজীবনের সহকারী কো-অর্ডিনেটর খান ফাহিম আল-ফুয়াদ ,সহকারী প্রধান শিক্ষক রোকেয়া পারভিন ,মফিজুর রহমান .বোরহান আলী ,মফিজুল হক প্রমুখ। বক্তারা বলেন জঙ্গীরা দেশ ও জাতির শত্রু। ইসলাম শান্তির ধর্ম। ইসলাম কখনও উগ্রতা ,জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসবাদকে আশ্রয় ও প্রশ্রয় দেয় না। কাজেই ধর্মের কথা বলে যারা মানুষ হত্যা করে সেই জঙ্গী ও সন্ত্রাসীদের নির্মুল করতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ ও আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে। স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা কোন ক্রমেই যেন ভুলপথে পা না বাড়ায় এবং বিপথগামী না হয় সেদিকে অভিভাবক শিক্ষকসহ সংশ্লিস্ট সকলকে সতর্ক দৃষ্টি রাখার আহ্বান জানান । এসময় সাতক্ষীরা নবজীবন ইনস্টিটিউটের ছাত্র-ছাত্রীরা,শিক্ষক ও কর্মকর্তারা   মানববন্ধনে  উপস্থিত ছিলেন।