সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে প্রথম দিনে ৮৮ ট্রাক ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানি


141 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে প্রথম দিনে ৮৮ ট্রাক ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানি
মার্চ ১৬, ২০২০ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

ডেস্ক রিপোর্ট ::

ভারতের পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হয়েছে। প্রথম দিনে ভোমরা বন্দর দিয়ে ৮৮ ট্রাকে পেঁয়াজ প্রবেশ করেছে। এতে ১ হাজার ৯৩৮ মেট্রিকটন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। রবিবার দুপুর থেকে ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হয়। দীর্ঘদিন পর পেঁয়াজ আমদানি শুরুর হওয়ায় ব্যবসায়ীদের মধ্যে স্বস্তি ফিরে এসেছে। সাতক্ষীরা ভোমরা শুল্ক স্টেশন কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট শাখার সহকারী কমিশনার রেজাউল করিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। ভোমরা স্থলবন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারক খোরশেদ বলেন, দেশের অন্য সকল স্থল বন্দরের চেয়ে ভোমর বন্দর দিয়ে সব চেয়ে বেশি পেঁয়াজ প্রবেশ করে। গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষণা করে দেয়। এর পাচ মাস পর ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করার পর আজ থেকে আবারও পেঁয়াজ আমদানি শুরু হয়েছে। ৩২ টাকায় ভারতীয় স্থানীয় হাসখালি পেঁয়াজ কেনা পড়েছে। ৩৫০ ডলারে এলসি খোলা হয়েছে। আমরা যারা শুধুমাত্র পেঁয়াজ ব্যবসায়ী ছিলাম তাদের অনেক ক্ষতি হয়েছে। ভারত সরকার পেঁয়াজ আমদানি শুরু করেছে এতে করে পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমবে। ভোমরা সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট এ্যাসোসিয়শনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম বলেন, ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেওয়ায় আজ থেকে ভারতীয় পেঁয়াজের ট্রাক ভোমরা বন্দরে প্রবেশ শুরু হয়েছে। গত বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। সম্প্রতি ভারতে পেঁয়াজের উৎপাদন ভালো হওয়ায় ও সরবরাহ বাড়ার কারণে ২৬ ফেব্রুয়ারি পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়ে ২ মার্চ এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করে। ভারত সরকার প্রথমে ১০ মার্চ থেকে পেঁয়াজ রপ্তানির ঘোষণা দিলেও পরে ১৫ মার্চ থেকে পেঁয়াজ রপ্তানির কথা বলা হয়।
তিনি আরও বলেন, কলকাতা থেকে দূরুত্ব কম হওয়ায় এই পেঁয়াজ আমদানির সবচেয়ে বড় পয়েন্ট হচ্ছে ভোমরা স্থল বন্দর। এই বন্দরের অনেক ব্যবসায়ী আছে যারা শুধুমাত্র পেঁয়াজের আমদানি করে থাকেন। ভারত সরকার পেঁয়াজ রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে তারা কিছুটা বিপাকে পড়েন। পেঁয়াজ আমদানি শুরুর সাথে সাথে বন্দরে কিছুটা কর্ম ব্যস্ততা বেড়েছে। পেঁয়াজ আমদানি শুরু সাথে সাথে বাংলাদেশ পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমেবে।
সাতক্ষীরা ভোমরা শুল্ক স্টেশন কাস্টমসের সহকারী কমিশনার রেজাউল করিম বলেন, ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার নিয়েছে। সাতক্ষীরা ভোমরা বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আসা শুরু করেছে। প্রথম দিনে ভারত থেকে ৮৮টি ট্রাকে করে ১হাজার ৯৩৮ মেট্রিকটন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। এদিকে, করোনা ভাইরাসের কারণে ভারত সরকার সকল দেশের বিশ^ব্যাপী ভিসা স্থগিত করার পর সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে শনিবার থেকে বাংলাদেশী পাসপোর্ট ধারী যাত্রীদের ভারতে প্রবেশ এক মাসের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। তবে, ভারতীয় পাসপোর্ট ধারী যাত্রীরা অবাধে বাংলাদেশে প্রবেশ করছেন। এছাড়া উভয় দেশের নাগরিক আগে যারা বাংলাদেশে এসেছে বা ভারতে গেছে তারা স্ব-স্ব দেশে ফিরতে পারছেন। এর ফলে শেষ দিন শুক্রবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত রেকর্ড পরিমান পাসপোর্টধারী যাত্রী ভারত-বাংলাদেশে যাতায়াত করেছেন।