সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দরে রাজস্ব আদায়ে ঘাটতি


346 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দরে রাজস্ব আদায়ে ঘাটতি
নভেম্বর ২০, ২০১৮ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

আব্দুর রহমান ::
চলমান অর্থবছরের প্রথম চার মাসে (জুলাই-অক্টোবর) সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর থেকে রাজস্ব আদায়ে ঘাটতি রয়েছে। এ সময়ে রাজস্ব আহরণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল ২৮৮ কোটি ৯৩ লাখ টাকা।রাজস্ব আহরণ হয়েছে ২৮১ কোটি ৮৩ লাখ ৮৬ হাজার ৭৬৩ টাকা। অর্থাত্ লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী রাজস্ব আহরণে ঘাটতি রয়ে গেছে ৭ কোটি টাকার কিছু বেশি। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে কম হলেও গত অর্থবছরের প্রথম চার মাসের তুলনায় এবার রাজস্ব আহরণ বেড়েছে। ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথম চার মাসে রাজস্ব আহরিত হয়েছিল ২১১ কোটি ৩৯ লাখ ৬৩ হাজার ৪৪১ টাকা। এ হিসাবে জুলাই-অক্টোবর মেয়াদে রাজস্ব আহরণ বেড়েছে প্রায় ৭০ কোটি টাকা। মূলত অর্থবছরের প্রথম দুই মাসের মোটা অংকের ঘটতির কারণেই চার মাস শেষেও লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সম্ভব হয়নি। জুলাই ও আগস্ট মিলিয়ে লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে রাজস্ব আহরণে ঘাটতি ছিল সাড়ে ৪৯ কোটি টাকা। সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে রাজস্ব আহরণ বেড়ে যাওয়ায় চার মাস শেষে ঘাটতির পরিমাণ ৭ কোটি টাকায় নেমে এসেছে।
ভোমরা শুল্কস্টেশনের রাজস্ব বিভাগের সূত্র অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরের প্রথম চার মাসে বন্দর থেকে রাজস্ব আহরণের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২৮৮ কোটি ৯৩ লাখ টাকা। এর মধ্যে জুলাইয়ে ৬৪ কোটি ৮৬ লাখ, আগস্টে ৮৪ কোটি ৮৭ লাখ, সেপ্টেম্বরে ৫৮ কোটি ৬১ লাখ ও অক্টোবরে ৮০ কোটি ৬২ লাখ টাকা রাজস্ব আহরণের লক্ষ্য ছিল জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর)। বিপরীতে চার মাসে রাজস্ব আহরিত হয়েছে ২৮১ কোটি ৮৩ লাখ ৮৬ হাজার ৭৬৩ টাকা। এর মধ্যে জুলাইয়ে ৪৭ কোটি ৬৪ লাখ ৯৪ হাজার ১২৭, আগস্টে ৬০ কোটি ৪৮ লাখ ৪৫ হাজার ৭০৩, সেপ্টেম্বরে ৮৮ কোটি ৪৩ লাখ ৯৪ হাজার ২৭৩ ও অক্টোবরে ৮৫ কোটি ২৬ লাখ ৫২ হাজার ৬৬০ টাকা রাজস্ব এসেছে।
ভোমরা শুল্কস্টেশনে দায়িত্বরত কাস্টমসের বিভাগীয় সহকারী কমিশনার সাগর সেন জানান, জুলাই-আগস্টে যে ঘাটতি ছিল, সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে তা অনেকাংশে পূরণ হয়ে গেছে। চার মাস শেষে ৭ কোটি টাকার সামান্য বেশি ঘাটতি রয়েছে। আশা করছি, শিগগিরই রাজস্ব আহরণে ঘাটতি কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হবে।

##