শ্যামনগরে বন্দুকযুদ্ধে বনদস্যু আলাল বাহিনী প্রধান আলালসহ ২ জন নিহত


345 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শ্যামনগরে বন্দুকযুদ্ধে বনদস্যু আলাল বাহিনী প্রধান আলালসহ ২ জন নিহত
সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৫ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

আব্দুর রহমান মিন্টু :
সাতক্ষীরার শ্যামনগরে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে বনদস্যু আলাল বাহিনীর প্রধান আলালসহ দুই জন নিহত হয়েছে। সোমবার রাত ৯.৩০টার দিকে উপজেলার বড়কুপোট গ্রামের পার্শ্বে নওয়াবেকী জামান ব্রিকসের মধ্যে এ ঘটনাটি ঘটে। নিহত বনদস্যুরা হলেন, আশাশুনি উপজেলার শিতলপুর গ্রামের আলিমুদ্দীন গাজীর ছেলে বনদস্যু আলাল বাহিনীর প্রধান আলাল গাজী ওরফে আলাউদ্দীন (৪৫) ও ৯ নং সোরা গ্রামের রশিদ সরদারের ছেলে সাইদুল (৩০)। এ সময় বনদস্যুদের ছোড়া ইট পাটকেলের আঘাতে তিন পুলিশ আহত হয়েছেন। ঘটনা স্থল থেকে পুলিশ ৫ রাউন্ড তাজা বন্ধুকের গুলি ও ৩ টি দা উদ্ধার করেছে।

শ্যামনগর থানার ওসি ইনামুল হক এ ঘটনার নিশ্চিত করে জানান, গোপন সংবাদের ভিক্তিতে শ্যামনগর থানার এসআই আব্দুল কাদের ও এসআই নাজমুল হাসান জানতে পারেন বনদস্যুরা রাতে নওয়াবেকী জামান ব্রিকসের পাশ দিয়ে সুন্দরবনে প্রবেশ করবে। এসময় তারা সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে সেখানে ওৎপেতে বসে থাকেন। বনদস্যুরা এ সময় পুলিশকে দেখে ইট ভাটার মধ্যে পালিয়ে যায়। পুলিশও তাদের পিছু নেয়। এসময় পুলিশকে লক্ষ্য করে তারা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে, পুলিশও আত্মরক্ষার্থে সেখানে গুলি ছোঁড়ে এতে বনদস্যু আলাল বাহিনীর প্রধান আলালসহ দুই বনদস্যু গুরুত্বর আহত হন। আহত দুই বনদস্যুকে শ্যামনগর স্বাস্থ্য কমল্পেক্সে নিয়ে আসলে কতব্যরত ডাক্তার তাদেরকে মৃত্যু ঘোষনা করেন।

এদিকে, বনদস্যুদের ছোড়া ইট-পাটকেলের আঘাতে তিন পুলিশ আহত হন। আহত পুলিশ সদস্যরা হলো, এসআই নাজমুল হাসান,এসআই আব্দুল কাদের ও কনেষ্টেবল সোনা মিঞা। পরে পুলিশ ঘটনা স্থলে তল্লাশি চালিয়ে ৫ রাউন্ড তাজা বন্ধুকের গুলি ও ৩ টি দা উদ্ধার করে।