সাতক্ষীরার সাবেক সিভিল সার্জন ডাঃ তৌহিদুর রহমানসহ নয়জনের বিরুদ্ধে দুদকের চার্জশিট দাখিল


612 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার সাবেক সিভিল সার্জন ডাঃ তৌহিদুর রহমানসহ নয়জনের বিরুদ্ধে দুদকের চার্জশিট দাখিল
সেপ্টেম্বর ৬, ২০২০ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর স্বাস্থ্য
Print Friendly, PDF & Email

১৬ কোটি ৭১ লাখ টাকা আত্মসাৎ মামলা

এম কামরুজ্জামান

সাতক্ষীরার সাবেক সিভিল সার্জন ডাঃ তৌহিদুর রহমানসহ নয়জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেছে দুদক। রোববার খুলনার সংশ্লীষ্ট আদালতে এই চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে বলে দুদক সূত্রে জানাগেছে।

চার্জশিটভুক্ত আসামিরা হলেন

সাতক্ষীরার প্রক্তর সিভিল সার্জন ডা: তৌহিদুর রহমান, সিভিল সার্জন অফিসের হিসাবরক্ষক মোঃ আনোয়ার হোসেন, সিভিল সার্জন অফিসের স্টোরকিপার এ, কে, এম ফজলুল হক, মোঃ জাহের উদ্দিন সরকার ( প্রোপাইটার মেসার্স বেঙ্গল সায়েন্টিফিক এন্ড সার্জিকেল কোং, তোপখানা রোড, সেগুনবাগিচা, ঢাকা), মোঃ আব্দুর ছাত্তার সরকার, (প্রোপাইটর/অংশীদার, মেসার্স মাকেন্টাইল ট্রেড ইন্টার ন্যাশনাল, নয়াপল্টন , ঢাকা), মোঃ আহসান হাবিব (প্রোপাইটর/অংশীদার, মেসার্স মাকেন্টাইল ট্রেড ইন্টার ন্যাশনাল, নয়াপল্টন , ঢাকা), মোঃ আশাদুর রহমান (সত্ত্বাধিকারী, ইউনিভার্সেল ট্রেড কর্পোরেশন, পুরানা পল্টন, ঢাকা), কাজী আবু বকর সিদ্দীক, (ম্যানেজার (প্রশাসন ও অপারেশন) মেসার্স মাকেন্টাইল ট্রেড ইন্টার ন্যাশনাল, নয়াপল্টন , ঢাকা) এবং এ,এইচ, এম আব্দুস কুদ্দুস ( সহকারী প্রকৌশলী (বর্তমানে অবসর),নিমিউ এন্ড টিসি, মহাখালী, ঢাকা)।

তদন্তে অভিযোগের সংক্ষিপ্ত বিবরণ:

তদন্তের অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, আসামিগণ অসৎ উদ্দেশ্যে পরস্পর যোগসাজশে অপরাধজনক বিশ্বাসভঙ্গ করে প্রতারণা ও জাল-জালিয়াতির আশ্রয়ে ক্ষমতার অপব্যবহারপূর্বক চিকিৎসা সংক্রান্ত মালামাল ক্রয় ও সরবরাহের নামে ০৩ (তিন) টি বিলের বিপরীতে মোট (৭,৮১,৭১,৮৭৮ + ৪,৪৯,৯৫,৫৪৪ + ৪,৩৯,৬৪,৮০০) ১৬ কোটি ৭১ লাখ ৩২ হাজার ২২২ টাকার (ষোল কোটি একাত্তর লক্ষ বত্রিশ হাজার দুইশত বাইশ টাকা) ০৩টি চেক হিসাব রক্ষণ অফিস, সাতক্ষীরা হতে গ্রহণপূর্বক উত্তোলন করে সরকারের আর্থিক ক্ষতি সাধনের মাধ্যমে আত্মসাৎ করেছেন।

আসামিদের বিরুদ্ধে তদন্তবিধির ৪২০/৪৬৭/৪৬৮/৪৭১/৪০৯/ ১০৯ এবং ১৯৪৭ সনের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে (দুদক, সজেকা, খুলনার (সাতক্ষীরা)।

দুদক প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম কমিশনের অনুমোদন সাপেক্ষে সংশ্লিষ্ট আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেছেন।

এর আগে দুদকের তৎকালীন উপসহকারী পরিচালক বর্তমানে সহকারী পরিচালক মোঃ জালাল উদ্দিন দুদকের অনুমোদন সাপেক্ষে ২০১৯ সালের ০৯ জুলাই আসামিদের বিরেুদ্ধ দুর্নীতি দমন কমিশন খুলনা সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে মামলাটি দায়ের করেন। দীর্ঘ তদন্ত শেষে রোববার আদালতে চার্জশিট দাখিল করলো দুদক।

আসামীরা সবাই বর্তমানে আদালত থেকে জামিনে রয়েছে।

#