সাতক্ষীরায় চোরাচালান ধরতে গিয়ে নদীতে ডুবে বিজিবি সদস্যের মৃত্যু


619 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় চোরাচালান ধরতে গিয়ে নদীতে ডুবে বিজিবি সদস্যের মৃত্যু
অক্টোবর ২৮, ২০১৮ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

ইব্রাহিম খলিল ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় চোরাচালান ধরতে গিয়ে চোরাকারবারীদের দড়িতে আটকে সীমান্তবর্তী সোনাই নদীর পানিতে ডুবে মারা গেছেন একজন বিজিবি সদস্য। তার নাম ল্যান্সনায়েক রফিক (৩৫)। তিনি কলারোয়ার কাকডাঙ্গা বিওপিতে কর্মরত ছিলেন। শনিবার রাতে কলারোয়া উপজেলার ভাদিয়ালীর বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তরেখার সোনাই নদীতে এ ঘটনা ঘটে।

ল্যান্সনায়েক রফিকের গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলায়। তিনি  গত সপ্তাহে কাকডাঙ্গা ক্যাম্পে যোগ দিয়েছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, বাংলাদেশ ও ভারতের চোরাকারবারীরা নদীর পানির নিচ দিয়ে পণ্য আনা-নেওয়ার জন্য দড়ি বেঁধে রাখে। এক পাশের পণ্য ওই দড়িতে বেঁধে অন্য পাশে টেনে নেওয়া হয়। শনিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে সোনাবাড়িয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ ভাদিয়ালীর ১নং পোস্টের কাছে সোনাই নদীর ধারে টহলরত অবস্থায় চোরাকারবারীদের তাড়া করেন বিজিবি সদস্য রফিক।  এ সময় নদীতে চোরাকারবারীদের পণ্য বাঁধা দড়ি ধরে ফেলেন তিনি। ভারতের পাশ থেকে চোরাকারবারীরা দড়ি ধরে টান দিলে রফিকও দড়ি ধরে বাংলাদেশের দিকে টানতে থাকেন। তখন দড়িতে আটকে নদীর মাঝখান পর্যন্ত চলে গিয়ে পানিতে ডুবে তার মৃত্যু হয়।

সাতক্ষীরা ৩৩ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মহিউদ্দীন আহম্মেদ জানান, বিজিব সদস্যরা লাশ উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে আজ (রোববার) তার লাশ গ্রামের বাড়িতে পাঠানো হবে।