সাতক্ষীরার যে ১১ নারী সংরক্ষিত আসনে এমপি হতে চান


554 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরার যে ১১ নারী সংরক্ষিত আসনে এমপি হতে চান
জানুয়ারি ২০, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

সুমন মুখার্জী /শাহীদুর রহমান :

একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে সাতক্ষীরা থেকে এমপি হতে চান ১১ নারী। গত ১৫ জানুয়ারি মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হওয়ার পর রাজধানীর ধানমন্ডিতে দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন তারা। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে সাতক্ষীরার এমপি হতে চান ১১ জন নারী। নারী সাংসদ হয়ে রাজনীতিতে ভূমিকা রাখতে চান তাঁরা।

মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন, সাতক্ষীরা জেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সদস্য সচিব লায়লা পারভিন সেজুঁথি, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশান সাতক্ষীরা জেলা শাখার সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা শিল্পী ঐক্যজোটের সাংস্কৃতিক সম্পাদক দেশের দক্ষিণবঙ্গের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী চৈতালি মুখার্জী, সাতক্ষীরা জেলা মহিলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদিকা পৌর কাউন্সিলর জ্যোৎস্না আরা, সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ’র সদস্য এড. শাহনেওয়াজ পারভীন মিলি, সাতক্ষীরা পৌর কাউন্সিলর ফারহা দিবা খান সাথী, মহিলা আ,লীগ নেত্রী শাহানা মুহিত, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় রোকেয়া হল শাখার সাবেক সভানেত্রী মাসুদা খানম মেধা, সাতক্ষীরার মেয়ে ঢাকা মহানগর উত্তরের সাবেক স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা বিষয়ক সম্পাদক ডেন্টিস্ট আদেলী এদিব খান, কলারোয়া উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক সুরাইয়া ইয়াসমিন রত্মা, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের নেত্রী কবি সালেহা আক্তার ও সাতক্ষীরার সাবেক এসপি চৌধুরী মঞ্জুরুল কবির পত্মী নূরজাহান মঞ্জুর।

আলোচিত এসব প্রার্থীরা সংরক্ষিত আসনে এমপি হয়ে জাতীয় সংসদে কার্যকর অবদান রাখতে চান । একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর থেকে প্রার্থীরা কেন্দ্রীয় লবিং-এ ব্যস্ত সময় পার করছেন। এদের মধ্যে শেষ হাসিটা কে হাসবেন তা নির্ভর করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপর।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের ৩৫০ আসনের জাতীয় সংসদে ৫০টি আসন নারীদের জন্য সংরক্ষিত। ৩০০ আসনে সরাসরি ভোট হলেও সংরক্ষিত আসন বণ্টন হয় ভোটে জয়ী দলগুলোর আসনসংখ্যার অনুপাতে। এ পদ্ধতিতে এবার আওয়ামী লীগ ৪৩ আসন পেতে পারে। একাদশ জাতীয় নির্বাচনের আগে ৩০০ আসনে সরাসরি নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছিলেন ৪ হাজার ২৩ জন। গড়ে প্রতিটি আসনের জন্য ফরম কিনেছিলেন ১৩ জন। সরাসরি আসনের সংখ্যার অনুপাতে সংরক্ষিত নারী আসনে দলটির ফরম বিক্রি হয়েছে বেশি। মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরুর পর থেকে আওয়ামী লীগের ধানমন্ডির কার্যালয়ে সাতক্ষীরার নারীদের ভিড় ছিল লক্ষ্যনীয়।