সাতক্ষীরায় অবৈধ মটরসাইকেলের বিরুদ্ধে পুলিশের সাড়াশি অভিযান


1352 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় অবৈধ মটরসাইকেলের বিরুদ্ধে পুলিশের সাড়াশি অভিযান
অক্টোবর ৫, ২০১৫ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
সাতক্ষীরা জেলার সকল থানায় পুলিশের ৫০টি টিম একযোগে রেজিস্ট্রেশন বিহীন মটর সাইকেলের বিরুদ্ধে বিশেষ অভিযান শুরু হয়েছে।
এরমধ্যে সাতক্ষীরা শহরেই ১৩টি টিম নামানো হয়। রোববার সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত জেলাব্যাপি একযোগে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। সাতক্ষীরা শহরের নিউ মার্কেট এলাকায় পুলিশ সুপার চৌধুরী মঞ্জুরুল কবির পিপিএম (বার) নিজেই উপস্থিত হয়ে এ বিশেষ অভিযানের দিকনির্দেশনা দেন। ট্রাফিক বিভাগের ইন্সপেক্টর, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, সকল ট্রাফিক সার্জন, উর্দ্ধতন পুলিশ কর্মকর্তাসহ পুলিশের চৌকশ সদস্যরা এ অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশ মোতায়েন করা হয় এবং একযোগে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

একজন বেসারকারী কলেজের অধ্যক্ষ এই প্রতিনিধিকে রাতে জানান, তিনি শহরের স্টেডিয়াম ব্রিজ এলাকা হয়ে প্রাণ সায়ের খালের পশ্চিম পাড় ধরে পাকাপুলের দিকে আসছিলেন। এ সময় সরকারী বালিকা বিদ্যালয়ের সামনের ব্রিজের নিকটে এসে দেখতে পান পানসি হোটেলের সামনে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। তিনি এনএসআই অফিসের সামনে দিয়ে পলাশপোলের ভিতরে ঢুকে পড়েন এবং চায়না বাংলার সামনে হয়ে প্রধান সড়ক ধরে কিছুদুর অগ্রসর হয়েই দেখতে পান সেখানেও পুলিশের তল্লাসী। তিনি আবার পিছনে ফিরে যান এবং পলাশপোলের ভিতরদিয়ে পুনরায় স্টেডিয়াম ব্রিজ পার হয়ে কাটিয়া এলাকায় ঢুকে পড়ে মুনজিতপুর হয়ে বড়বাজার দিয়ে ইটাগাছা হাটের সামনে আসেন। অপর একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, উপজেলা পরিষদের সামনে থেকে তার ব্যবহৃত অনটেস্ট মটরসাইকেলটি আটক করে পুলিশ।

শহরের পোস্ট অফিস মোড়, নিউমার্কেট মোড়, বাকাল ব্রিজ, আলিয়া মাদ্রাসা, পুরাতন সাতক্ষীরা, খুলনা রোড় মোড়,চৌরঙ্গী মোড়, পুলিশ লাইনের সামনে, আমতলাসহ বিভিন্ন এলাকায় এই অভিযান চালানো হয়।

এদিকে সারাদেশে মটরসাইকেল সংক্রান্ত অভিযান সম্পর্কে রোববার সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সাংবাদিকদের বলেন, দেশের সব জেলায় বিদেশিরা যেখানে কাজ করেন সেখানে বিশেষ নজরদারির কথা বলে দিয়েছি। বিদেশি নাগরিক হত্যার দু’টি ঘটনায় তিন ব্যক্তি ছিলেন। একইভাবে মোটরসাইকেলে ঘটনাস্থলে পৌঁছে হত্যাকান্ড চালিয়ে পালিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।

মোটরসাইকেলে আরোহী চলাচলে নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, একজনের বেশি থাকলে প্রত্যেককেই চেক করা হবে। দুই আরোহীসহ তিনজন যেতে দেওয়া হবে না। স্ত্রী-সন্তানসহ মোটরসাইকেল চালানোর বিষয়ে শিথিল অবস্থার ইঙ্গিত দিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের প্রশ্ন রেখে বলেন, স্ত্রী-সন্তানসহ চারজনও যায়, সেখানে কী বলবো বলেন?