শেখ হেলাল’র ভাগ্নে পরিচয় দানকারী সোহেল হুমকি দিচ্ছে তালার এক ব্যবসায়ীর


664 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
শেখ হেলাল’র ভাগ্নে পরিচয় দানকারী সোহেল হুমকি দিচ্ছে তালার এক ব্যবসায়ীর
সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৮ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

*সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ

 

স্টাফ রিপোর্টার ::
শেখ হেলাল এমপি’র ভাগ্নে পরিচয় দিয়ে জনৈক শহীদুল ইসলাম সোহেল সাতক্ষীরার তালা উপজেলার কয়েকজন ব্যবসায়ীর পাওনা টাকা না দিয়ে তালবাহনা, চেক জালিয়াতি এবং উল্টো মিথ্যে মামলায় জড়িয়ে তাদেরকে হয়রানি করার হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শনিবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন তালা উপজেলার ব্যবসায়ী কবির হোসেন, কাজী শামীনুল ইসলাম. মোঃ সেলিম ও নাজমুল শেখ।
লিখিত বক্তব্যে তারা বলেন, মেসার্স এস,আর ট্রেডার্সের প্রোপাইটার শহীদুল ইসলাম সোহেল সাতক্ষীরার তালা উপজেলার তালা সদর হতে ডাংগানলতা সড়কসহ তেঁতুলিয়া, জাতপুর ও পাঁচরখি সড়কের ঠিকাদারি কাজ করার সময় আমাদের কাছ থেকে পৃথক ভাবে ইট, বালু ও পাথর ক্রয় করেন। এসব মালামালের বকেয়া টাকাসহ শ্রমিকদের কাজের টাকা ও ট্রাক্টরের হ্যারের বিলের টাকা বাবদ তার কাছে আমাদের প্রায় ২০ লাখ পাওনা হয়। এর মধ্যে তালার শাহাপুর বাজার এলাকার মেসার্স তামিম এন্টারপ্রাইজের প্রোঃ কবির হোসেনের কাছ থেকে রড, সিমেন্টও পাথর ক্রয় বাবদ পাওনা ৫ লাখ ৫০ হাজার, খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার আঠারোমাইল বাজার এলাকার মোঃ সেলিম এর পাথর ক্রয় বাবদ পাওনা ১ লাখ ৫০ হাজার, তালার তেঁতুলিয়া এলাকার কাজী শাামিম হ্যারোর বিল বাবদ পাবেন ৪৭ হাজার টাকা এবং একই এলাকার নাজমুল শেখ লেবার বিলসহ ১২ লাখ ৮ হাজার ৬’শ টাকা পাবেন। এসব পাওনা টাকা ডকুমেন্ট রয়েছে। দীর্গদিন ধরে ওই পাওনা টাকা চাইলে শহীদুল ইসলাম সোহেল টাকা না দিয়ে আজ না কাল করে টালবাহনা শুরু করেন। উপায়ন্ত না পেয়ে তারা টাকা অদায়ের জন্য এল,জি,ই,ডি সাতক্ষীরার নির্বাহী প্রোকৌশলী বরাবর ৫ সেপ্টেম্বর একটি আবেদন করেন। বিষয়টি জানতে পেরে ঠিকাদার শহীদুল ইসলাম সোহেল মোবাইলে পাওনাদার নাজমুল ইসলাম শেখকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধামকি প্রদান করেন।
তারা অভিযোগ করে বলেন, ঠিকাদার শহীদুল ইসলাম সোহেলের স্ত্রী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষিকা রুমার সাথে তার সাতক্ষীরাস্থ ভাড়া বাসায় গিয়ে পাওনাদাররা কথা বললে বিল তুলে টাকা দেয়ার কথা জানালেও অদ্যবদি কেউ টাকা পায়নি। এছাড়া সোনালী ব্যাংক দৌলতপুর কলেজ রোড শাখা ও এসবিএসি ব্যাংক লিঃ খুলনা শাখার চেক দিলেও সে সব একাউন্টে কোন টাকা নেই। শহীদুল ইসলাম ওরফে সোহেল খুলনার শিববাড়ি মোড় এলাকায় ঢাকা ব্যাংকের পঞ্চম তলায় এস আর গ্রুপের নাম দিয়ে পর্দার আড়ালে বিদেশে লোক পাঠানোসহ নানা প্রকার ধোকাবাজি ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। অফিসের লোকদের কাছে তার ঠিকানা জানতে চাইলে কেউ বলে না। সম্প্রতি মেসার্স তামিম এন্টারপ্রাইজের প্রোঃ কবির হোসেন ঠিকাদার শহীদুল ইসলাম সোহেলের বিরুদ্ধে একটি চেক জালিয়াতির মামলা করেছেন। দীর্ঘদিন ধরে আমরা টাকা না পেয়ে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়েছি। পাওনা টাকা চাইলে টাকা না দিয়ে শহীদুল ইসলাম সোহেল নিজেকে শেখ হেলাল এমপি’র ভাগ্নে পরিচয় দিয়ে উল্টো আমাদের মিথ্যে মামলা দিয়ে হয়রানি করার হুমকি দিচ্ছে। তারা আইনগত সহযোগিতা পাওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন। সংবাদ সম্মেলনে পাওনাদার কবির হোসেন, মোঃ সেলিম, কাজী শামীনুল ইসলাম ও মোঃ নাজমুল শেখ উপস্থিত ছিলেন।

##