সাতক্ষীরায় কিডনি বিক্রির টাকা নিয়ে গোপনে বিয়ে করলেন স্ত্রী, স্বামীর বিষপান


459 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় কিডনি বিক্রির টাকা নিয়ে গোপনে বিয়ে করলেন স্ত্রী, স্বামীর বিষপান
সেপ্টেম্বর ১, ২০২২ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আকরামুল ইসলাম ::

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় কিডনি বিক্রির টাকা নেওয়ার পর স্বামীকে গোপনে তালাক দিয়ে অন্যত্র বিয়ে করেছেন এ নারী। এ ঘটনা জানার পর সাবেক স্বামী আতাউর রহমান (৪০) নামে বিষপান করে মারা গেছেন। বুধবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে উপজেলা সদরের লাঙ্গলঝাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আতাউর রহমান (৪০) সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আইচপাড়া গ্রামের মৃত লতিফ সরদারের ছেলে।

আতাউরের মা জাহানারা খাতুন জানান, তার ছেলে উপজেলার মুরারীকাটি গ্রামের আয়ুব আলীর মেয়ে মমতাজ খাতুনকে বিয়ে করে। সেখানে দুটি কন্যাসন্তান রয়েছে। পরে গোপনে লাঙ্গলঝাড়া গ্রামের শরিফুল ইসলামের মেয়ে রুবিনা খাতুনকে দ্বিতীয় বিয়ে করে। এরপর ভারতে গিয়ে একটি কিডনি বিক্রি করে তিন লাখ টাকা ছোট স্ত্রী রুবিনাকে দেয়। টাকা পাওয়ার পর রুবিনা আতাউরকে তালাক দিয়ে অন্য ছেলেকে গোপনে বিয়ে করেছে। এই খবর জানার পর বিষ খেয়ে মারা গেছে আতাউর।

আতাউরের শাশুড়ি মর্জিনা খাতুন বলেন, জামাই অন্য স্থান থেকে বিষ খেয়ে বাড়ির উঠানে এসে পড়ে যায়। উদ্ধার করে কলারোয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

লাঙ্গলঝাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক এম এ কালাম বলেন, তার ইউনিয়নের এক জামাই বিষপানে মারা গেছে বলে তিনি শুনেছেন। খবর পেয়ে থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।

কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসির উদ্দীন মৃধা বলেন, কিডনি বিক্রি করে সেই টাকা দিয়েছিলেন ছোট স্ত্রী রুবিনাকে। পরবর্তীতে রুবিনা অন্য একটি ছেলেকে বিয়ে করায় অভিমানে বিষপান করে মারা গেছেন আতাউর। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।