সাতক্ষীরায় জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব বিষয়ক আলোচনা সভা


572 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব বিষয়ক আলোচনা সভা
ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email
  • ‘দেশকে এগিয়ে নিতে সচেতন মহলের ভূমিকা রাখা অবশ্যই জুরুরী’

নাজমুল আলম মুন্না ::

জলবায়ূ পরিবর্তনের ফলে ক্ষুদ্র-নৃ-গোষ্ঠির লোকজন সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়। তাই সরকারী খাস জমি উদ্ধার করে দরিদ্র ভূমিহীন লোকদের মাঝে বরাদ্ধ দেয়া হবে। দরিদ্র মানুষদেরকে নিয়ে আর ব্যবসা করতে দেয়া হবেনা। সকল অবৈধ পন্থায় জলাশয় দখলদারদের কাছ থেকে সরকারী সম্পত্তি উদ্ধার করা জরুরী হয়ে পড়েছে। তাই ভূমি খেখোদের অবলিম্বে স্বমূলে ধ্বংস করা হবে। সাসটেইনেবল কর্মপন্থার মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নিতে সচেতন মহলের ভূমিকা রাখা অবশ্যই জরুরী। আমরা সবাই একসাথে সমন্বয় করে কাজ করলে এসডিজি লক্ষমাত্রা অর্জন করতে সহজ হবে। সাতক্ষীরায় নদী খননের জন্য ৬৪ কোটি টাকা সরকারী বরাদ্ধ এসেছে যার মধ্যে শুধু মাত্র প্রাণ সায়ের খালের উন্নয়নের জন্য বরাদ্ধ ১৪ কোটি টাকা। একমাত্র ঠিকাদার অংশ ছাড়া সব টাকাই কাজে লাগানো হবে। কোন প্রকার লুটপাট সহ্য করা হবেনা। সকল অবৈধ ও লাইসেন্স বিহীন ইটভাটার বিরুদ্ধে অচিরেই এ্যাকশ্যান গ্রহন করা হবে। জলবায়ূ পরিবর্তনজনীত দুর্যোগ আমাদের সব সময় মোকাবেলা করতে হয়। আমাদের পরিবেশ এবং প্রতিবেশ রক্ষায় আমাদের সকলের বিবেককে জাগ্রত করতে হবে। সাতক্ষীরায় অপরিকল্পিতভাবে চিংড়ী চাষ, নদী-খাল খনন করতে দেয়া হবেনা। নদীর নাব্যতা এবং প্রবাহ ফিরিয়ে আনতে উদ্যোগ গ্রহন দরকার। “উপকূলীয় এলাকায় ভূমি-কৃষি-জলা, পানি ব্যবস্থাপনা এবং প্রান্তিক মানুষের অধিকার প্রেক্ষিত জয়বায়ূ পরিবর্তনের প্রভাব বিষয়ক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক এস,এম মোস্তফা কামাল এসব কথা বলেন।

বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা হিউম্যান রাইটস্ এন্ড এনভায়রনমেন্টাল এ্যাকশন ডেভেলপমেন্ট (হেড) এর ব্যবস্থাপনায় এবং এসোসিয়েশন ফর ল্যান্ড রিফর্ম এ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (এএলআরডি) এর আর্থিক সহযোগিতায় সোমবার সকাল ১০.৩০ মিনিটে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এএলআরডি এর নির্বাহী পরিচালক শামসুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন সাতক্ষীরা সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রনি আলম নূর, সাতক্ষীরা প্রেস ক্লাবের সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহম্মেদ, সাতক্ষীরা সরকারী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল হামিদ ও স্বদেশের নির্বাহী পরিচালক মাধব চন্দ্র দত্ত।

সভায় স্বাগত বক্তব্য উপস্থাপন করেন হেড সংস্থার নির্বাহী পরিচালক লুইস রানা গাইন। ১৩ টি সুপারিশ তুলে ধরে প্যানেল আলোচনায় অংশগ্রহন করেন সুশীল সমাজের প্রতিনিধি সুধাংশু শেখর সরকার, ক্রিসেন্টের নির্বাহী পরিচালক আবু জাফর সিদ্দিকী, বাংলাদেশ ভিশনের নির্বাহী পরিচালক অপরেশ পাল, সামস্ এর নির্বাহী পরিচালক কৃষ্ণপদ মুন্ডা, জিডিএফ সভানেত্রী ফরিদা আক্তার বিউটি, জেলা পরিষদ সদস্য এ্যাড: শাহনেওয়াজ পারভীন মিলি ও মাহফুজা সুলতানা রুবি। সভায় অংশগ্রহন করেন সাতক্ষীরা সরকারী মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর দিলারা বেগম, দৈনিক প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিনিধি কল্যান ব্যানার্জী, এনটিভি’র সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি সুভাস চেীধুরী, এটিএন বাংলার জেলা প্রতিনিধি এম,কামরুজাজামান, মাছরাঙা টিভি’র জেলা প্রতিনিধি মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল, বরসা’র সহকারী পরিচালক মোঃ নাজমুল আলম মুন্না, জেলা ব্য্রাক প্রতিনিধি মোঃ রেজাউল করিম খান, টিআইবি সাতক্ষীরা জেলা শাখার ম্যানেজার আবুল ফজল মোৎ আহাদ, ব্রেকিং দ্য সাইলেন্সের অফিস ইনচার্জ মোঃ শরিফুল ইসলাম, উত্তরণ প্রতিনিধি এ্যাড. মুনির উদ্দীন, সুশীলনের সহকারী পরিচালক জিএম মনিরুজ্জামানসহ সাতক্ষীরা সদর, শ্যামনগর, আশাশুনি, দেবহাটার জলবায়ু উদ্বাস্তুসহ শতাধিক নারী ও পুরুষ। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এএলআরডি এর কর্মকর্তা আজিম হায়দার, মোঃ রফিকুল ইসলাম, হেড সংস্থার শেখ আহছানুল ইসলাম, মোঃ শামিমুল ইসলাম, শরিফা খাতুন, আনারুল ইসলাম, নাজমুল হোসেন প্রমুখ।

#