সাতক্ষীরায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস পালিত


133 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস পালিত
সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল আলম মুন্না /মাহফিজুল ইসলাম আককাজ ঃ
“কন্যা শিশুর অগ্রযাত্রা-দেশের জন্য নতুন মাত্রা” এই শ্লোগানকে ধারন করে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে এবং সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস ২০১৯ উপলক্ষে বর্নাঢ্য শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে এবং সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস ২০১৯ উপলক্ষে সোমবার সকাল ৯.৪৫ মিনিটে জেলা প্রশাসক এস,এম মোস্তফা কামালের নেতৃত্বে সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের সামনে হতে এক বর্নাঢ্য শোভাযাত্রা আরম্ভ হয়ে জেলা শিল্পকলা একাডেমি এসে এক আলোচনা সভায় মিলিত হয়। মহিলা অধিদপ্তরের প্রোগ্রাম অফিসার ফাতেমা জোহরার সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক এস,এম মোস্তফা কামাল। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সাতক্ষীরা সদর আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি রবি বলেন,‘জননেত্রী শেখ হাসিনা মহান জাতীয় সংসদে মহিলাদের আসন সংখ্যা বৃদ্ধি করেছেন। মহিলাদের গুরুত্ব দিয়ে দেশের গুরুত্বপূর্ণ কাজে অধিষ্ঠিত করেছেন। সমাজ থেকে বাল্য বিবাহ দুর করতে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে বন্ধ করতে হবে। সাতক্ষীরায় বাল্য বিবাহ আগের থেকে অনেকাংশে কমেছে। মেয়েদের মেধা ও বিবেককে কাজে লাগিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে হবে। নারীদেরকেও সচেতন হতে হবে। অনেক দুঃস্কৃতকারীরা নারী ও শিশুদের বিদেশে পাচার করে তাদের বিরুদ্ধে সজাগ হতে হবে। আমাদের সাতক্ষীরার মেয়েরা ও ছেলেরা দেশের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অ্গংনসহ সকল উন্নয়ন ও ভাল কাজে সম্পৃক্ত থেকে সাতক্ষীরার ভাবমুর্তি উজ্জল করছে।’

জেলা প্রশাসক কন্যা শিশুদের উদ্দেশ্য বলেন কন্যারা প্রথমে কন্যা, তারপর জায়া এবং পরবর্তীতে তারা মা’ তে রূপান্তরিত হয়। এজন্য মায়ের জাতিকে কোনরকম অসম্মানিত করা চলবেনা। এছাড়া তিনি বাল্যবিবাহর প্রতি নিশেধাক্কা জারি করে সকলকে বাল্যবিবাহ বন্ধে আহবান জানান। এছাড়া তিনি উপস্থিত সকল ছাত্রীদের নিজের কন্যা আখ্যায়িত করে আলোচনা সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন। আলোচনা সভা শেষে নবারুন বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা কবিতা আবৃতি, দেশাত্ববোধক গান ও আমরাও পারি নাটক পরিবেশন করে।