সাতক্ষীরায় জাল কাগজ দিয়ে জমি দখল : সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ


150 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় জাল কাগজ দিয়ে জমি দখল : সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ
জুলাই ৩১, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

শিশুদের শিক্ষিত করার ব্রত নিয়ে মাদ্রাসা তৈরি করে সুনাম কুড়িয়েছেন মাও. রবিউল ইসলাম। কিন্তু ইউনুস আলি জাল কাগজ বানিয়ে আবুল হাসানের রেকর্ডীয় সম্পত্তি দখলের পায়তারা শুরু করেছেন। এর জের ধরে ইউনুস আতিয়ার নামক এক ব্যক্তিকে কাজে লাগিয়ে ওই জাল কাগজের বুনিয়াদে দখলের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হন। অথচ ৪৪নং জগন্নাথপুর মৌজা, এসএ খতিয়ান ৭৩০, দাগ নং ৩৩৯৩, জমির পরিমান ০৯ শতক যার হাল দাগ ৪১৩১, এসএ রেকর্ডিও মালিকদের ওয়ারেশগণ বিক্রয় করে। উক্ত দলিলের গ্রহীতা ৮৪৮০ নং দলিলের মাধ্যমে বিক্রয় করে। উক্ত গ্রহিতা ১০৮৪৯ নং দলিলে বিক্রয় করে। উক্ত গ্রহীতা ৫৪৯০ নং দলিল মুলে এই জমির বর্তমান মালিক পরানদহা এলাকার আতর আলী দালালের পুত্র আবুল হাসান স্বনামে উপজেলা ভূমি অফিস হতে মিউটেশন করেছেন। এখন তিনি খাজনা দিয়ে দখলকার আছেন। ইতিমধ্যে টাকার প্রয়োজন পড়ায় উক্ত জমি বিক্রয় করতে চাইলে পরানদহা দারুল উলুম ইয়াতিমখানা কমিটি তা কিনতে আগ্রহী হয়। অথচ ইউনুছ ও তার পুত্র পলাশ ওই জমি আতিয়ার রহমানকে দখল করায়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে।
বুধবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে এ কথা বলেন সাতক্ষীরার নিলিখালি গ্রামের গোলাম বারী ও পরানদহা গ্রামের আবুল হাসান।
ইউনুস জাল কাগজপত্র সংগ্রহ করেছে। সোনারডাঙ্গা গ্রামের সাবেক মেম্বর ভূবেন্দ্রনাথ সরকারের দলিল রেকর্ডীয় ভোগ দখলীয় সম্পত্তি জবর দখল করায় আদালতে বিচারাধীন আছে। গত ২৮ জুলাই আদালতের আদেশ ১৪৫ ধারা অমান্যকারী আতিয়ার সংবাদ সম্মেলন করে উক্ত ব্যক্তির নামে কুৎসা রটনা করেছে। তাতে প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় এলাকাবাসী সহ জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। আমি প্রতিষ্ঠান সেক্রেটারী মোঃ গোলাম বারী ও উক্ত জমির মালিক আবুল হাসান এই সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানাই ও সর্ব সাধারণের বিভ্রান্ত না হওয়ার আহবান জানাই। আমরা এধরনের মিথ্যা জালিয়াতির সাথে জড়িত ইউনুসের শাস্তি দাবি করছি।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি