সাতক্ষীরায় জোর করে সম্পত্তি ভোগ দখলের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন


69 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় জোর করে সম্পত্তি ভোগ দখলের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
জুলাই ৮, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

সাতক্ষীরায় সন্ত্রাসীদের গড ফাদার কাউন্সিলর কালু ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী কর্তৃক মায়ের কৃত সম্পত্তি ভোগ দখলের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে এ অভিযোগ করেন সাতক্ষীরা শহরের কাটিয়া এলাকার মৃত আবু তালেব সরদারের পুত্র শরিফুল ইসলাম।
লিখিত অভিযোগে তিনি বলেন আমি একজন অসহায় গরিব দরিদ্র দ্বীনমজুর ও আওয়ামীলীগের একানিষ্ঠ কর্মী। পলাশপোল মৌজায়, দাগ নং- ৪৩১১, ৪৩১২, ৪৩১৩ হাল ৪৪৯৪ দাগে আমার মায়ের ক্রয়কৃত১২.৫০ শতক সম্পত্তি রয়েছে। ওই সম্পত্তির উপর নজর পড়ে সাতক্ষীরা শহরের চিহ্নিত ভূমিদস্যু গডফাদার ইটাগাছা এলাকার মৃত আব্দুর রাজ্জাকের পুত্র ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ জাহাঙ্গীর হোসেন কালুর। সে কৌশলে তার সন্ত্রাসী বাহিনীকে ব্যবহার করে আমার সম্পত্তি দখলের পায়তারা শুরু করে এবং ওই সন্ত্রাসী বাহিনীর সদস্য খড়িবিলা এলাকার মৃত রাজাউল্লাহ সরদারের পুত্র জাম্মাদ আলী, মৃত জাহান আলী সরদারের পুত্র সুজিবার রহমান, মৃত ইব্রাহিম ডাক্তারের পুত্র রেজাউল ইসলাম, মৃত নুর আহম্মদ ঢালীর পুত্র ফজলু ঢালী,মৃত মারজানের পুত্র আবুল কাশেম ও মফেজ উদ্দীনের পুত্র আকছেদ আলীর সহযোগীতায় স্থানীয় আ’লীগ নেতাদের ম্যানেজ করে খুন জখম ও মিথ্যা মামলার ভয় দেখিয়ে উক্ত সম্পত্তি দখল করে রেখেছে। এবিষয়ে বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেও কোন ফল পাইনি। ভূমিদস্যু সন্ত্রাসী গডফাদার কালু ও তার বাহিনী জোরপূর্বক আমার সম্পত্তি ভোগদখল করছে। শুধু আমার সম্পত্তি নই শহরের একাধিক সম্পত্তি সে এভাবে জোর করে ভোগদখল করে রেখেছে। যাহা সঠিক তদন্ত করলে বেরিয়ে আসবে তার আসল চেহারা। কিন্তু কালু প্রভাবশালী হওয়ায় তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে সাহস পায় না। মুখ খুললে মিথ্যা মামলা জড়িয়ে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয় এবং তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে মারপিট করে হাত পা ভেঙে দেওয়া হয়। তার বাহিনীর সদস্যরা অস্ত্র নিয়ে আমাকে প্রায়ই তাড়া করে। তারা যে কোন সময় আমাকে খুন জখম করতে পারে বলে আমি আশংকা করছি। ওই সম্পত্তি টুকুই আমার অবলম্বন। সেটি না পেলে আমার অসহায় মাতাকে নিয়ে পথে বসতে হবে।
এব্যাপারে তিনি মায়ের সম্পত্তি উদ্ধার ও জীবনের নিরাপত্তার দাবিতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

সূত্র : সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব থেকে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

#