সাতক্ষীরায় নানা কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে শহীদ জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন


641 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় নানা কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে শহীদ জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন
মে ৩০, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

আসাদুজ্জামান ও ইব্রাহিম খলিল :
বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা ও স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৫ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে সাতক্ষীরা জেলা বিএনপি ও তার অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে সোমবার দুপুরে দুঃস্থদের মাঝে খাদ্য (খিচুড়ি) বিতরণ, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বেলা সাড়ে ১২ টায় সাতক্ষীরা জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ ইফতেখার আলীর নেতৃত্বে কামালনগর হাটের মোড়ে দুঃস্থদের মাঝে খাদ্য (খিচুড়ি) বিতরণ, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় সেখানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা পৌর মেয়র বিএনপি নেতা তাসকীন আহম্মেদ চিশতি, অ্যাডভোকেট সৈয়দ ইখলেছার আলী বাচ্চু, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ, ইউসুফ বাবু প্রমুখ।

IMG_20160530_133103_027

এদিকে, সাতক্ষীরা শহরের আমতলা এলাকায় হালিমা খাতুন শিশু সদনের সামনে পৃথক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির সভাপতি রহমততুল্লাহ পলাশ, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আব্দুর রউফ, জেলা বিএনপির যুগ্ন সম্পাদক অধ্যাপক মোদাচে।ছরুল হক হুদা, শের-আলী, শহর বিএনপির সভাপতি হাবিবুর রহমার হবি, কৃষকদল সভাপতি আবু জাহিদ ডাবলু, সাধারন সম্পাদক সালাউদ্দীন লিটু, ছাত্রদল সভাপতি হাফিজুর রহমান মুকুলসহ বিএনপি ও তার অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

দোয়া অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন, হাফেজ মাওলানা আব্দুল হাকিম। পরে সেখানে দূঃস্থদের মাঝে খিচুড়ি বিতরণ করা হয়। এরপর দুপুর দুইটার দিকে সাতক্ষীরা শহরের হাটের মোড়ে জেলা বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক এড. ইফতেখার আলীর নেতৃত্বে আরও একটি দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা ও দুঃস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরন করা হয় ।

13321661_251633178526940_6471644774258192445_n

শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে কয়েক বছর পরে সাতক্ষীরা শহরে বিএনপির একাংশের নেতারা প্রকাশ্যে কোন অনুষ্ঠানে মিলিত হলো। বিশেষ করে ২০১৩ সালের পরে সাতক্ষীরায় প্রকাশ্যে বিএনপির কোন ধরণের সভা, সমাবেশ , আলোচনাসভা করতে দেখা যায়নি। যেসব অনুষ্ঠান তারা আয়োজন করেছিল তা জেলা বিএনপির সভাপতির বাস ভবনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকতে দেখা যায়।