সাতক্ষীরায় পাচারের কবল থেকে উদ্ধারপ্রাপ্ত কিশোরীদের মাঝে হাঁস বিতরণ


215 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় পাচারের কবল থেকে উদ্ধারপ্রাপ্ত কিশোরীদের মাঝে হাঁস বিতরণ
মে ১৮, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার ::

সেন্টার ফর উইমেন এন্ড চেলড্রেন স্টাডিজ কর্তৃক আয়োজিত এবং UNODC’র আর্থিক সহযোগিতায় মানব পাচারের শিকার ভিকটিমদের উদ্ধার, প্রত্যাবাসন এবং প্রয়োজনীয় সেবা প্রদান – শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় উদ্ধারপ্রাপ্ত কিশোরীদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে ৩ দিনের হাঁস প্রশিক্ষণ কর্মশালা CWCS-এর ট্রেনিং সেন্টারে ১৬-১৮ই মে ২০১৯ তারিখে অনুষ্ঠিত হয়। প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনি অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন CWCS-এর প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর মো: নজরুল ইসলাম এবং প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য ও হাস বিতরণ করেন জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমুন নাহার।
প্রধান অতিথি নাজমুন নাহার বলেন, আল্লাহর কাছে শুকরিয়া তোমরা তোমোদের বাবা-মায়ের কাছে ফিরে আসতে পেরেছো। আর যারা ফিরে আসতে পারেনি তারা খুবই খারাপ অবস্থায় আছে। মেয়েরা সবচেয়ে ঝুকির মধ্যে আছে। তিনি কিশোরীদের উদ্দেশ্যে বলেন কারো সাথে মোবাইলে কোন সম্পর্ক করা যাবে না। অনেকে বিরক্ত করবে তাদের কোন কথা শুনা যাবে না। কোন ঘটনা ঘটলে প্রথমেই বাবা-মাকে জানাতে হবে। পাচারকারীরা ভয়-ভীতি দেখাবে তোমরা ভয় পেয়ে বসে থাকবে না প্রয়োজনের সিডব্লিসিএস, মহিলা অধিদপ্তর এবং পুলিশকে ৯৯৯ নাস্বারে জানাবে। তিনি আরও বলেন, সিডব্লিউসিএস উদ্ধারপ্রাপ্ত কিশোরীদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। তোমাদের মাঝে যে ২০টি হাস ও হাসের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছে তা যত্নসহকারে পালন করে নিজেদের পায়ে দাড়ানোর চেষ্টা করবে।
প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর মো: নজরুল ইসলাম সমাপনী বক্তব্যে বলেন, জীবনে চলার পথে অনেক বাঁধা বিপত্তি আসবে সেগুলি অতিক্রম করে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। ভয় পেয়ে বসে থাকলে চলবে না ভয়কে জয় করতে হবে তাহলেই জীবনে সফলতা আসবে। তিনি বলেন আজ প্রশিক্ষণের শেষ দিন তোমাদের মাঝে ২০টি হাস দেওয়া হচ্ছে তা ভালভাবে পালন করে তোমাদের লেখাপড়ার খরচসহ পরিবারেও আর্থিক স্বচ্ছলতা আনতে গুরুত্বপুর্ন ভুমিকা রাখতে পারবেন।
হাস বিতরণ ও সমাপণী অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সিডব্লিউসিএস-এর লিয়াজো অফিসার রুহুল আমিন।

#