সাতক্ষীরায় পৈত্রিক সম্পত্তি দখল চেষ্টার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন


124 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় পৈত্রিক সম্পত্তি দখল চেষ্টার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

ভূয়া দলিল দেখিয়ে সংশ্লিষ্ট অফিসের কতিপয় কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করে জাল কাগজপত্র তৈরি করে সাতক্ষীরার মাধবকাটিতে পৈত্রিক সম্পত্তি দখল চেষ্টার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে উক্ত সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন, সদর উপজেলার মাধবকাটি বাজার এলাকার ইনছাফ আলী মোড়লের স্ত্রী হাছিনা খাতুন(৫৬)।
তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, বিগত ২০০২ সালে মাধবকাটি মৌজায় জে এল নং-৮১, এস এ নং-৪৫১, দাগ নং- ৪৪২, হাল দাগ- ৬২২, জমির পরিমাণ মোট ৭৯ শতক এর মধ্যে ৩ শতক সম্পত্তি পৈত্রিক সূত্রে দানপত্রে মূলে প্রাপ্ত হই। এরপর থেকে উক্ত সম্পত্তিতে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগদখল শুরু করি। কিন্তু উক্ত জমি কৌশলে দখলের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয় একই এলাকার ফেরাজতুল্যা’র পুত্র এলাই বক্স গং। এর জের ধরে তারা ভূয়া দলিল নং ব্যবহার করে উক্ত সম্পত্তি তাদের নামে প্রিন্ট পর্চা উত্তোলন করে। উক্ত জাল প্রিন্ট পর্চার বুনিয়াদে তারা আমার পৈত্রিক সম্পত্তি দখলে মরিয়া হয়ে ওঠে। এঘটনায় আমি বিগত ২০১০ সালের দিকে সাতক্ষীরা সদর সহকারী জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করি। মামলা নং ১৬২/১০। উক্ত মামলা চলমান রয়েছে। এরপর যে জমি দুটি দলিলের বুনিয়াদে প্রিন্ট পর্চা তৈরি করেছে পরসম্পদ লোভী ফেরাজতুল্যা গং সেই দলিলের সার্টিফাই কপি উত্তোলন করার পর জানতে পেরেছি উক্ত দলিল অন্য ব্যক্তির এবং অন্য দুটি দাগের। আমার সম্পত্তি কৌশলে ভোগদখল করার উদ্দেশ্যে তৎকালিন সেটেলমেন্ট অফিসের কতিপয় কর্মকর্তাকে মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে ম্যানেজ করে অন্য ব্যক্তির দলিল নাম্বার ব্যবহার করে ওই জাল প্রিন্ট পর্চা তৈরি করেছে ফেরাজতুল্যা গং।
তাদের কাগজপত্র জাল হওয়ায় আদালতে মামলা নিস্পত্তি হওয়ার পূর্বেই তারা গায়ের জোরে সম্পত্তি দখল করার জন্য বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়। এরই জেরে গত ৮/০৯/১৯ তারিখে এলাই বক্স, তার স্ত্রী তানজিলা খাতুন, কন্যা ময়না খাতুন, জামাতা শাহাজাহান আলী, আনিছউদ্দীন বিশ্বাসের পুত্র আবুল খায়ের বিশ্বাসসহ ৮/১০ জন ধারালো অস্ত্র শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ওই সম্পত্তিতে প্রবেশ করে গাছপালা কেটে ক্ষয়ক্ষতির চেষ্টা করে। এতে আমরা বাধা দিতে গেলে তারা আমাকে এবং পরিবারের সদস্যদের খুন, জখমের হুমকি প্রদর্শন করে তাড়িয়ে দেয়। এঘটনায় আমি জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে গত ০৯/০৯/২০১৯ তারিখে সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করি। থানা পুলিশ মামলা নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত এধরনের কর্মকান্ড থেকে তাদের বিরত থাকার নির্দেশ দেন। কিন্তু থানায় অভিযোগের খবরে তারা আমাদের উপর আরো ক্ষিপ্ত হয়ে খুন, জখম এবং রাস্তা ঘাটে একা পাইলে আমাকে ও আমার পরিবারের সদস্যদের মারপিট করে জান মালের ক্ষতি করবে বলে হুমকি প্রদর্শন করে যাচ্ছে। আমি বর্তমানে ওই জালিয়াতি চক্রের হোতা এলাই বক্স গংয়ের ভয়ে জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছি। এমতাবস্থায় তিনি উক্ত এলাই বক্স গংয়ের হাত থেকে তার পৈত্রিক সম্পত্তি উদ্ধার এবং জীবনের নিরাপত্তার দাবিতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি