সাতক্ষীরায় পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে ১২ ভাই-বোনকে বঞ্চিত করার জন্য ষড়যন্ত্র করছেন লাবসা গ্রামে কাজী শফিউল হক


448 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে ১২ ভাই-বোনকে বঞ্চিত করার জন্য ষড়যন্ত্র করছেন লাবসা গ্রামে কাজী শফিউল হক
অক্টোবর ৮, ২০১৫ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
সাতক্ষীরায় বসত বাড়িতে না থাকার সুযোগে সদর উপজেলার লাবসা গ্রামের কাজী শফিউল হক তার আপন অন্য ৭ ভাই ও ৫ বোনকে তাদের পৈত্রিক ভিটা ও  ঘরের দখল না দেয়ার জন্য নানা ভাবে পায়তারা শুরু করেছে। বাইরে থেকে ভাই বোনেরা কেউ বাড়িতে আসলে শফিকুল তাদের তাথে অসৌজ্যমূলক আচারণ করে ও নানা ধরনের হুমকি প্রদর্শন করে। বৃহস্পতিবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে ভাই-বোনদের পক্ষে লাবসা গ্রামের মৃত কাজী রহমাতুল হকের ছেলে কাজী সিরাজুল হক এই অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে কাজী সিরাজুল হক বলেন, তারা ৮ ভাই ও ৫ বোন। শফিউল হক বাদে তাদের অন্য ৭ ভাইরা ঢাকা, খুলনা ও সাতক্ষীরা শহরে বসবাস করে। বোনেরা বিবাহিত হওয়ায় তারা শশুর বাড়িতে থাকে। লাবসা গ্রামে তাদের পৈত্রিক ভিটায়  ৫৩ শতক জমি ও ৬ রুম বিশিষ্ট একতলা একটি বাড়ি রয়েছে। ফারায়েজ অনুযায়ী তাদের ভাই শফিউল হক ৫ শতক জমি পাবে। পিতা জীবিত অবস্থায় শফিউলকে একটি ঘর প্রদান করেন এবং বাকী ৫টি ঘর তাদের অন্য ৭ ভাই ও ৫ বোনকে দিতে বলেন। কিন্তু অন্য ভাইয়েরা বাড়িতে না থাকার সুযোগে সে সব গুলো ঘর নিজের বলে দাবি করে। সময় সুযোগ বুঝে কোন ভাই বা বোন পৈত্রিক ভিটায় বেড়াতে আসলে সে কাউকে কোন ঘরে থাকতে দিতে চায়না বা থাকার মত পরিবেশ সৃষ্টি করতে অনীহা প্রকাশ করে। এমনকি বসত ভিটায় লাগানো গাছের কোন ফল পাড়তে নিষেধ করে। ওই সম্পত্তির তারও একজন ওয়ারেশ একথা ভুলে গিয়ে সে সকল সম্পত্তি নিজের বলে দাবি করে। এমনকি আমরা যাতে ওই সম্পত্তির দাবি না করি সেজন্য বিভিন্ন ধরনের অসৌজ্যমূলক আচারণ ও নানা ধরনের হুমকি ধামকি প্রদর্শন করে।

তিনি আরো বলেন, নিজের হীন স্বার্থ চরিতার্থ করার উদ্দেশ্যে শফিউল গত ৬ অক্টোবর সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে তাদের ভাইদের নামে বিভিন্ন ধরনের মিথ্যে অভিযোগ করেছে। অন্য ভাইরা তাকে পৈত্রিক ভিটা থেকে উচ্ছেদ করার পায়তারা করছে বলে সে যে অভিযোগ করেছে তা সম্পূর্ন মিথ্যে, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত। বরং অন্য ভাই-বানেরা যাতে পিতার সম্পত্তির ভাগ নিতে না পারে সেজন্য শফিউল নানা ধরনের ফন্দি ফিকির করার চেষ্টা করছে। বিষয়টি শান্তিপূর্ন ভাবে নিষ্পত্তির জন্য প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে কাজী সিরাজুল হকসহ তার অন্য ভাইয়েরও উপস্থিত ছিলেন।