সাতক্ষীরায় প্রবেশদ্বারে কঠোর নজরদারি


268 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় প্রবেশদ্বারে কঠোর নজরদারি
মে ১৬, ২০২০ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

ডেস্ক রিোর্ট ::

করোনা সংক্রমণ রোধে যান ও জন চলাচল বন্ধে সাতক্ষীরার সব প্রবেশদ্বারসহ আন্ত:উপজেলা প্রবেশ পথে চেক পোস্ট বসিয়ে কঠোর নজরদারি করা হচ্ছে। এসব চেক পোস্টে আন্ত:জেলা ও আন্ত:উপজেলা যান ও জন চলাচল বন্ধে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে পুলিশ, আনসার ও স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী সার্বক্ষণিক কাজ করছে। শুক্রবার বেলা ১১টায় জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল লাবসা বাইপাস মোড়ে এই কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করেন।

এ সময় যশোর থেকে আসা কয়েকটি গাড়িকে যশোরে ফেরত পাঠানো হয়। একই সাথে বেনাপোল, সৈয়দপুর ও ঢাকা থেকে পিকআপ যোগে আসা কয়েকজনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়।
এদিকে রাতে সাতক্ষীরা শহরে কর্মরত কয়েকজন সার্জেন্ট টেলিফোনে জানান, সন্ধ্যায় শহরের বাইপাস মেডিকেল কলেজ এলাকা থেকে ঢাকা মেট্রো-ব-১৩-০৪৫৮ একটি যাত্রীবাহী ঠিকানা পরিবহনের যাত্রবাহী বাস আটক করে পুলিশ লাইনে নেন। বাসটির বিরুদ্ধে মামলাও দেয়া হয়েছে। জেলার ভিতরে ও বাইরে কোন যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকা অবস্থায় প্রতারণা মুলকভাবে ধানকাটা শ্রমিক পরিবহনের ব্যানার ব্যবহার করে গাড়িটি সাতক্ষীরায় আসে।

এব্যাপারে ট্রাফিক সার্জেন্ট মামুনুর রহমান রাতে জানান, এটি মুলত ঢাকার ধামরাই যাত্রাবাড়ী লাইনের একটি লোকাল বাস। ঢাকা থেকে বিভিন্ন শ্রমিক নিয়ে মোটা অংকের চুক্তিতে সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে আসে। সেখানে যাত্রী নামিয়ে দিয়ে ফেরার পর শহরে আটক হয়। তিনি আরও বলেন, ওই গাড়িটি আটকের পর সমস্ত যাত্রীদের কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে।
জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল জানান, করোনা সংক্রমণ রোধে আন্ত:জেলা ও জেলার অভ্যন্তরে আন্ত:উপজেলা যান ও জন চলাচল বন্ধের বিকল্প নেই। একই সাথে ঈদ মার্কেটে ব্যাপক ভিড় হওয়ায় কাপড়ের দোকানসহ শপিং মল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।