সাতক্ষীরায় বন্যপ্রাণী সংক্ষণ বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা


333 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় বন্যপ্রাণী সংক্ষণ বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা
অক্টোবর ১৪, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

এস এম সেলিম :
বন্যপ্রাণী ও বিচার বিভাগ কর্মকর্তাদের জন্য বন সেদিকে ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সকাল ৯ টায় সাতক্ষীরা জেলা আইনজীবী ভবনে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। প্রকল্প কনসালটেন্ট মোঃ আজাদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জজকোর্টের পিপি এড. ওসমান গনি। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও সাবেক সাংসদ স.ম সালাউদ্দীন। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এড. তোজাম্মেল হোসেন তোজা, বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. ইউনুস, এড. মোস্তফা নুরল আলম, এড. ফাহিমুল হক কিসলু, এড. তপন কুমার দাশ, এড. প্রসাদ সরকার, এড. নাজমুন নাহার ঝুমুর, এড. শাহানাজ পারভীন মিলি, এড. সৈয়দ জিয়াউর রহমান, এড. মিজান, এড. রওশানার, এড. নাদেরা পারভীন, এড. কামরুন্নাহার ছবি, এড. রফিকুল  ইসলাম, এড. কাজী মোফাজ্জেল হক, এড, আল মাহমুদ পলাশ, এড. মোস্তাফিজুর রহমান, এড. মোজাম্মেল হক, এড. এড. আব্দুল্লাহ আল মামুন, এড. শামীমা পারভীন, এড. আব্দুল আজিজ(২)। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রকল্প কোয়াডিনেটর নুরুল ইসলাম, সাতক্ষীরা জেলা জোনাল ম্যানেজার রুহুল আমিন প্রমুখ। এসময় বক্তারা বলেন, সুন্দরবন শুধুমাত্র বাংলাদেশের ঐতিহ্য নয় এটি এখন বিশ্বের ঐতিহ্য। সুন্দরবন আমাদের মা। আমাদের ফুসফুস। বর্তমানে একশ্রেনীর অসাধূ ব্যক্তি তাদের হীন স্বার্থ  চরিতার্থ করার জন্য বনের গাছপালা, পশু-পাখি নির্বিচারে ধ্বংস করছে। যেটা আমাদের পরিবেশের জন্য, দেশের জন্য মারাত্মক হুমকি স্বরুপ। সুন্দরবনে বর্তমানে বাঘের সংখ্যা দিন দিন কমে যাচ্ছে। হারিয়ে জীব বৈচিত্র। ধ্বংস হচ্ছে আমাদের সমাজ, আমাদের রাষ্ট্র। এই সুন্দরবনের ফলে  বাংলাদেশে প্রাকৃতিক দূর্যোগ কম হয়। বর্তমানে দূর্নীতিবাজ বন কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় কতিপয় স্বার্ষানেষী মহল বাঘ হত্যা তার চামড়া, হরিনের চামড়া বিদেশে পাচার করার ফলে আমাদের দেশে বাঘের সংখ্যা কমতে শুরু করেছে। বক্তারা আরোও বলেন এসব পাচারকারীদের বিরুদ্ধে যদি কোন মামলা হয় তা সঠিক তথ্য প্রমাণ এবং স্বাক্ষীর অভাবে সে মামলার নিষ্পত্তি করা সম্ভব হয় না। এসব মামলা ১০ থেকে ১২ বছরেও নিষ্পত্তি হয়নি। যদি এসব পাচাকারীদের আইনের আওতায় এনে সঠিক বিচার করা যায় তাহলে বন্য প্রানী রক্ষা করা সম্ভব হবে। বন্য প্রানী সংরক্ষণ করতে হলে এ ব্যাপারে সরকার কে আরো কঠিন আইন করতে হবে। জনসচেতনতা বাড়াতে হবে। সীমান্তে যেমন বিজিবি থাকলে দেশে কোন জঙ্গি অনুপ্রবেশ করতে পারে না তেমনি সুন্দরবনে বাঘ থাকলে সেখানে জন সাধারণ প্রবেশ করতে পারবে না। সুন্দরবনকে রক্ষা করতে হলে আমাদের সকলকে একসাথে কাজ করতে হে