সাতক্ষীরায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পালিত হলো দৈনিক ভোরের পাতার জন্মদিন


707 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পালিত হলো দৈনিক ভোরের পাতার জন্মদিন
মে ১৮, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

আবুল কাশেম :
‘আনন্দ ধ্বনি জাগাও গগনে’এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বর্ণাঢ্য আয়োজনে সাতক্ষীরায় পালিত হলো দৈনিক ভোরের পাতার যুগপদার্পণের জন্মদিন। এ উপলক্ষ্যে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের হলরুমে সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের মিলন মেলা বসেছিল বুধবার সকালে। সকাল এগারটায় প্রেসক্লাবের সভাপতি এড. আবুল কালামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক আবুল কাসেম মোঃ মহিউদ্দীন।

20160518_110344

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্রশাসক মুনসুর আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু, সাতক্ষীরা পৌর মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতী,  প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক কল্যাণ ব্যানার্জী,  দৈনিক দৃষ্টিপাত সম্পাদক জি এম নূর ইসলাম, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এম. কামরুজ্জামান,  প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জ্বল, বরুন ব্যনার্জী প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা প্রতিনিধি ডাঃ মহিদার রহমান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনে ছিলেন সাংবাদিক আবুল কাসেম।

pic-1

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন,গৌরব করার মত সাতক্ষীরাবাসীর অনেক কিছুই আছে। ক্রিকেট, ফুটবল, সুন্দরবন, আম ও চিংড়ী মাছের জন্য দেশে-বিদেশে সাতক্ষীরার আলাদা একটি পরিচিতি গড়ে উঠেছে। জেলার উন্নয়নে সাংবাদিকদেরও গৌরবজ্জ্বল ভূমিকা রয়েছে। দৈনিক ভোরের পাতা দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি পত্রিকাটির উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি ও পাঠক র্হদয়ে সুদৃঢ় অবস্থানের আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

20160518_114021

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বক্তারা বলেন, ভোরের পাতার প্রতিটি পাতা দেশের বহমান চিত্র পাঠকের সামনে বস্তনিষ্ঠভাবে উপস্থাপন করে। অসাম্প্রদায়িকতা,মুক্তিযুদ্ধ ও গনতন্ত্রের চেতনাকে ধারন করে এক যুগে পদার্পন করেছে পত্রিকাটি। জাতীয় পত্রিকা হলেও পত্রিকার সম্পাদক সাতক্ষীরার সন্তান হিসেবে এ জেলার সমস্যা ও সম্ভাবনাকে তুলে ধরার আহবান জানান বক্তারা। তারা সাতক্ষীরার পর্যটন খাতকে বিকশিত করতে ভোরের পাতা গুরুত্বপুর্ণ ভুমিকা রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

পরে প্রধান অতিথি অন্যান্য অতিথি বৃন্দকে সাথে নিয়ে জন্মদিনের বিশাল কেক কাটেন।