সাতক্ষীরায় বিরল রোগে আকান্ত মুক্তামনি ভাল নেই


767 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় বিরল রোগে আকান্ত মুক্তামনি ভাল নেই
মে ১৭, ২০১৮ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

বদরুজ্জামান খোকা ::
বিরল এক রোগে আকান্ত সাতক্ষীরা সদরের বাঁশদহার কামারবায়সা গ্রামের ইব্রাহিমের মেয়ে মুক্তামনি। তার বাবা-মা মেয়ের চিকিৎসার জন্য স্থানীয় এবং ঢাকার অনেক চিকিৎসকের কাছে গেছেন। কিন্তু কিছুতেই যেন কিছু হচ্ছে না। দিন-দিন খারাপের দিকে যাচ্ছে ১২ বছরের আলোচিত কিশোরী মুক্তামনির হাত। ব্যথার যন্ত্রণায় প্রতিনিয়ত কান্নায় ছটফট করছে সে। আগের চেয়ে এখন তার হাতটি আরোও ফুলে গেছে। প্রতিনিয়ত ড্রেসিং করতে হয় তার হাত। কয়েক দিন আগে ড্রেসিং এর সময় আঙ্গুল দিয়ে বেরিয়ে আসে৩৭/৩৮ টি বড় পোকা। এতে তার পরিবার আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। অপারেশন করে হাত থেকে যা কিছু অপসারণ করা হয়েছিল তা পুরণ হয়ে গেছে। এখন আরও গন্ধ বেড়েছে, প্রতিনিয়ত রক্ত পড়ছে। পোকা বের হওয়ার পর হতে এলাকার লোকজন তার কাছে ভয়ে যেতে যাচ্ছেনা। মুক্তার পিতা ইব্রাহিম হোসেন বলেন মুক্তার হাত আর ভালো হবে না। সংবাদ মাধ্যম বিষয়টা প্রচার করার পরে ডাক্তাররা অনেক গুরুত্ব দিয়ে মুক্তাকে চিকিৎসা করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তার ব্যাপারে খোঁজ নিয়েছে। আমার আশা ছিল মুক্তা ভাল হলে নিয়ে যেতাম প্রধানমন্ত্রীকে দেখাতে। কিস্তু সে তো আর ভাল হবে না,তার দেখেই বোঝা যাচ্ছে। মুক্তা মনির চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা ডাক্তার জানান, মুক্তামনির হাতটি ভালভাবে ড্রেসিং করা হয়েছে এ সমস্যা দূর হতে অনেক সময় লাগবে। মুক্তা মনির পরিবারের ও পিতা-মাতা মুক্তা মনির জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।
##