সাতক্ষীরায় বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালন


341 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালন
জুন ৫, ২০১৮ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল আলম মুন্না ::
জীবন জীবিকার টেকসই নিরাপত্তার জন্য সবুজ পরিবেশ ও প্রতিবেশ-বান্ধব উন্নয়ন নিশ্চিতের লক্ষ্যে এবং ধরিত্রির প্রাকৃতিক পরিবেশের ওপর ক্রমবর্ধমান মানবসৃষ্ট ক্ষতিকারক কার্যকলাপ প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ১৯৭৩ সাল থেকে বিশ্বব্যাপী প্রতিবছর ৫ জুন বিশ্ব পরিবেশ দিবস হিসাবে পালিত হয়ে আসছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগে আমরা বিশ্বের অনেক দেশের তুলনায় সাফল্য অর্জন করলেও পরিবেশ দূষণ রোধে ততটাই পিছিয়ে রয়েছি। এটা আমাদের সচেতনতার অভাবেরই প্রতিফলন ছাড়া কিছুই না। বাংলাদেশের মতো এতো আইন বিশ্বের কোন দেশে নেই উল্লেখ করে বলেন সবকিছুতেই যদি আইন করতে হবে তবে শিক্ষার গুরুত্ব কমে যায়। এজন্য আমাদের সমাজে, শহরে সর্বপরি দেশের নাগরিকদের সুশিক্ষা ও বিবেক প্রয়োজন এবং সুনাগরিক আচরন দরকার। জেলা প্রশাসক জনগণকে প্রশ্ন রেখে বলেন আপানার বাড়ীতে বা ঘর কি আপনারা অপরিস্কার-অপরিচ্ছন্ন বা নোংরা রাখেন ? অবশ্যই রাখেন না। তাহলে কেন আমরা রাস্তা-ঘাটে, নদী নালায়, খালে বর্জ ফেলাই ? এটা ভেবে দেখা দরকার। আসলে আমাদের সকলের বিবেকের অভাব আছে। আমরাই যদি পরিবেশ রক্ষা না করে নিজেদের ক্ষতি নিজেরা করি তাহলে কে আমাদের বাচাবে, আইন করে কি হবে। আসলে আমরা বলি এক আর করি আরেক কাজ। আসলে আমরা জাতিগতভাবে নোংরা স্বভাবের। সাতক্ষীরা বড় বাজার, প্রাণ সায়ের খালসহ শহরের বিভিন্ন স্থানকে আমরা ডাষ্টবিনে পরিনত করেছি। আসলে ডাষ্টবিন আমরা ব্যাবহার করি না-করতে জানিনা বা করিনা, কারন ডাষ্টবিনের যে অবস্থা সেটার কাছে যাওয়ার উপায় নাই। আমরা ডাষ্টবিনে ময়লা ফেলিনা ময়লা ফেলি তার পাশে। আমাদের অল্টারনেট চিন্তাধারা থাকতে হবে। অল্টারনেট ব্যবস্থা না করে পরিপূর্ণ পরিবেশ রক্ষা সম্ভব না। সাতক্ষীরা পৌরসভা জার্মান কেএফডাব্লিউ থেকে ২৬৫ টাকা বরাদ্ধ পেয়েছে এবার প্রাণ সায়ের খালসহ সাতক্ষীরা শহরের বিভিন্ন উন্নয়ন ঘটবে বলে আশা করেন। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন আয়োজিত বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯ টায় সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে কালেক্টরেট চত্তর হতে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী পরবর্তী জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এক সেমিনারে এসব কথা বলছিলেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ ইফতেখার হোসেন।
“প্লাষ্টিক পুনঃ ব্যবহার করি , না পারলে বর্জন করিঃ এই শ্লোগানকে ধারন করে ডিডিএলজি শাহ আব্দুল সাদীর সঞ্চালনায় সেমিনারে সভাপতিত্ব করে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) তরফদার মাহমুদার রহমান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সহকারী কমিশনার আসফিয়া সিরাত ও সনাক সাতক্ষীরার সভাপতি কিশোরী মোহন সরকার। মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহন করেন জিডিএফ সভানেত্রী ফরিদা আক্তার বিউটি, স্বদেশের নির্বাহী পরিচালক মাধব চন্দ্র দত্ত, সনাক সহ-সভাপতি তৈয়ব হাসান বাবু ও সাতক্ষীরা সরকারী কলেজের প্রভাষক মোঃ ওয়ালিউর রহমান। অনুষ্ঠানে ভিডিও প্রজেক্টরের মাধ্যমে পরিবেশ চিত্র প্রদর্শন করেন সাতক্ষীরা পলিটেকনিক কলেজের ইন্সটেক্টর অঞ্জন কুমার ভট্রাচার্য। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করেন, জেলা তথ্য অফিস, উন্নয়ন সংগঠন হেড, বরসা, স্বদেশ, টিআইবি, বাংলাদেশ বন্ধু ফাউন্ডেশন, অর্জন ফাউন্ডেশন, প্রথম আলো বন্ধু সভা, জিডিএফ, ও ব্রেকিং দ্য সাইলেন্সএর শতাধিক বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মী এবং ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ। জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে উন্নয়ন সংগঠন বরসা’র নিজস্ব অর্থায়নে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

##