সাতক্ষীরায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবাদ সম্মেলন


164 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবাদ সম্মেলন
জানুয়ারি ২৭, ২০২১ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার ::

খুলনার নাগরিক বিএনপি নেতা অহিদুল কোটি টাকার বিনিময়ে নৌকার মনোনয়ন নেওয়ার চেষ্টার প্রতিবাদ জানিয়েছেন সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার খাজরা ইউনিয়নের বীর মুক্তিযোদ্ধারা। বুধবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এই প্রতিবাদ জানান। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পড়ে শোনান, খাজরা ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা এবাদুল মোল্ল্যা।
তিনি বলেন, আগামী ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান আলহাজ¦ শাহনেওয়াজ ডালিমকে পরিকল্পিতভাবে পরাজিত করার লক্ষে একটি চক্র সক্রিয় হয়ে উঠেছে। ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি রুহুল কুদ্দুস খুলনার বাসিন্দা অহিদুল ইসলামকে এলাকায় এনে নৌকার মনোনয়ন পাইয়ে দেওয়ার চক্রান্ত চালাচ্ছেন। অহিদুল ইসলামের জন্ম খাজরায় হলেও তিনি ৪০ থেকে ৪৫ বছর খুলনায় স্থায়ীভাবে বসবাস করে আসছেন। সে কারনে অহিদুল নিজের ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করে খাজরার ভোটার হওয়ার চেষ্টা করছেন। এছাড়া কোটি টাকার মিশন নিয়ে উপজেলা আ’লীগের কতিপয় অর্থলোভী নেতাদের ম্যানেজ করে নৌকার মনোনয়ন পাইয়ে দেওয়ার পায়তারা চালিয়ে যাচ্ছেন। এখবর প্রচার হওয়ায় এলাকায় স্বাধীনতার স্বপক্ষে শক্তিসহ আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে তীব্র হতাশা ও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
তিনি অভিযোগ করে বলেন, টানা দুইবারের বিপুল ভোটে নির্বাচিত চেয়ারম্যান ডালিমের জনপ্রিয়তায় ঈষান্বিত হয়ে তার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা চেয়ারম্যান ডালিমের বিরুদ্ধে একাধিক মিথ্যে মামলাসহ বিভিন্ন দপ্তরে ভিত্তিহীন অভিযোগ দায়ের করে হয়রানি করে যাচ্ছেন। এমনকি তার প্রয়াত পিতা সহযোগি মুক্তিযোদ্ধা মৃত. আলহাজ¦ মোজাহার উদ্দিনের বিরুদ্ধে একজন ভূয়া মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে দিয়ে যুদ্ধাপরাধির মিথ্যে মামলা দায়ের করায়। আমরা মুক্তিযোদ্ধারা এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছি। ডালিম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে খাজরা ইউনিয়ন পরিনত হয়েছে শান্তির স্থানে। এ শান্তি বিনষ্ট করতে রুহুল কুদ্দুসের সহযোগিতায় এলাকায় প্রবেশ করে বিএনপি-জামায়াত ক্যাডারদের একত্রিত করে অহিদুল এলাকার পরিবেশকে অশান্ত করতে শুরু করেছে। ইতোমধ্যে এলাকায় অপরাধমূলক কার্যক্রম বৃদ্ধি পেয়েছে। এলাকায় মারপিট, সংঘর্ষ ও দাঙ্গা হাঙ্গামায় অহিদুলের বিরুদ্ধে আশাশুনি থানাসহ আদালতে ৫টি মামলা রুজু হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, চেয়ারম্যান ডালিম ২০১১ সাল হতে বর্তমান পর্যন্ত টানা দুইবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান। ডালিমের জনপ্রিয়তা রুহুল কুদ্দুসসহ তার প্রতিপক্ষকরা মেনে নিতে না পেরে উপজেলা আ’লীগের কতিপয় অর্থলোভী নেতাদের ছত্রছায়ায় ডালিমসহ তার পরিবারের বিরুদ্ধে মিথ্যে মামলা, হামলাসহ নানাভাবে হয়রানি করে যাচ্ছে। আমরা মুক্তিযোদ্ধাসহ মুক্তিযোদ্ধার স্বপক্ষের শক্তি এবং সর্বসাধারণ মানুষ এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। অহিদুল যাতে কোন ভাবেই নৌকার মনোনয়ন পেতে না পারে এবং চেয়ারম্যান ডালিমসহ তার পরিবার মিথ্যো মামলা হামলার হাত থেকে রক্ষা পেতে পারে সেজন্য প্রধানমন্ত্রী, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, সাতক্ষীরা জেলা আ’লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
সাংবাদিক সম্মেলনে বীর মুক্তিযোদ্ধা হাকিম সরদার, বীর মুক্তিযোদ্ধা রইচউদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়নুদ্দিন সানা, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাকিম সানা, বীর মুক্তিযোদ্ধা দীনেশ চন্দ্রসহ অত্র এলাকার প্রায় শতাধিক জনগন উপস্থিত ছিলেন।

#