সাতক্ষীরায় ভ্রাতৃদ্বিতীয়া-ভাই ফোটা পালিত


1717 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় ভ্রাতৃদ্বিতীয়া-ভাই ফোটা পালিত
নভেম্বর ১, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
ভ্রাতৃদ্বিতীয়া-ভাই ফোটা। বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সব বোনেরা তাদের ভাইয়ের কপালে ফোঁটা দিয়ে উচ্চারণ করবে ‘ভাইয়ের কপালে দিলাম ফোটা, জমের দুয়ারে পড়ল কাঁটা। যমুনা দেয় যমকে ফোঁটা, আমি দেই আমার ভাইকে ফোঁটা’।বাঙালি সংস্কৃতিতে কার্তিক মাসের শুক্লা দ্বিতীয়া তিথিতে এই রীতি প্রচলিত আছে।

‘তত্র যম পূজা দিকমঙ্গ্ ভগিনী হস্তাদ্ ভোজনং প্রধানং কর্ম’ অর্থাৎ যম, যমুনা, চিত্রগুপ্ত ও যমদুতের পূজা করে যমকে অর্ঘ্য দিয়ে ভগিনী বড় ভাইকে পূজা করেছোট ভাইকে আদর ও ভালোবাসা জানিয়ে ভাইয়ের কপালে তিলক এঁকে দেয়। ভাই এ সময় তার প্রিয় বোনকেবস্ত্র প্রভৃতি উপহার দেয়। এরপর বোন ভাইকে যতœ করে উপাদেয় খাদ্য পরিবেশন করেন। ভাইয়ের কপালে ফোটা দেয়ার পূর্বে বোন ভাইকে শিশিরের জল দিয়ে মাথা, কপাল ও ভ্রু ধুইয়ে ভ্রুতে কাজল দিয়ে সজ্জিত করেন। তারপর কপালে চন্দনের ফোটা দিয়ে উচ্চারণ করেন সেই মায়াবি মন্ত্র ‘সর্বেশ্বরী মন্ত্রের জোকার, ভাইনা যাইও যমের দুয়ার। ভাইয়ের কপালে দিলাম ফোটা, যমের দুয়ারে পড়ল কাঁটা। যমুনা দেয় যমকে ফোটা, আমি দেই আমার ভাইকে ফোটা’।

সনাতন ধর্মানুসারী পৃথিবীব্যাপী বাঙালির প্রতিটি ঘরে ঘরে বোনেরা ভাইদের দীর্ঘায়ু-মঙ্গলময় জীবন কামনা করে তাদের ললাটে এঁকে দেয় চন্দনের সু-শীতল ফোটা। বড় বোন ছোট ভাইকে এবং বড় ভাই ছোট বোনকে উপহার সামগ্রী প্রদান করেন। ভাইদের বোনেরা পরিবেশন করেন উপাদেয় খাদ্য সামগ্রী। আর এই ভাই ফোটার মধ্য দিয়ে রচিত হয় ভাই বোনের মাঝে পারিবারিক, সামাজিক তথা স্বর্গীয় পবিত্র বন্ধন।  সাতক্ষীরা জেলার বিভিন্ন হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িতে বাড়িতে মঙ্গলবার দিন ভোর চলে উৎসাব।