সাতক্ষীরায় মটর সাইকেল ছিনতাইয়ের ঘটনায় এক ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন


411 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় মটর সাইকেল ছিনতাইয়ের ঘটনায় এক ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন
নভেম্বর ২৫, ২০১৫ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টা :
সাতক্ষীরায় আসন্ন ইউপি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে আগ্রহী এক চেয়ারম্যান প্রার্থীর মটর সাইকেল ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ মটর সাইকেলটি উদ্ধার করতে সক্ষম হলেও এঘটনায় থানায় দেয়া এজাহারটি এখনও নিয়মিত মামলা হিসাবে রেকড করা হয়নি। বুধবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন জেলার আশাশুনি উপজেলার মধ্যম একসরা গ্রামের মেকাইল সানার ছেলে মোঃ ফারুকুজ্জামান।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ফারুকুজ্জামান বলেন, আসন্ন ইউপি নির্বাচনে আনুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য দীর্ঘদিন ধরে তিনি একায় গণসংযোগ ও বিভিন্ন ভাবে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে আসছেন। কিন্তু এঘটনায় ইর্ষান্বিত হয়ে তার প্রতিপক্ষ একটি গ্রুপ তাকে বিভিন্ন ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ ও হেয়প্রতিপন্ন করার ষড়যন্ত্র শুরু করে। গত ২৩ নভেম্বর তিনি তার সঙ্গী উত্তর একসরা গ্রামের মৃত কাদের সরদারের ছেলে আব্দুস সবুরকে নিয়ে মটর সাইকেলে কাকবসিয়া গ্রামের মৃত আলাউদ্দিন গাজীর জানাজা নামাজে শরীক হওয়ার জন্য যান। এসময় তার মালিকানাধীন ভারতীয় তৈরী লাল কালো রংয়ের ডিসকভার মিটর সাইকেলটি (যার ইঞ্জিন নং- ঔততডঊখ-৯৩৭৩০  এবং চেচিস নং- গউ২অ১৫ইতওঊডখ-৯২৮৩৫ ) কাকবসিয়া বাজারে রেখে মৃতের জা নামাজে শরীক হন। জানাজা শেষে তার সঙ্গী আব্দুস সবুর মটর সাইকেলটি নিয়ে মৃত আলাউদ্দিন গাজীর বাড়িতে আসার পথে বেলা সাড়ে ৫ টার দিকে কাকবসিয়া গ্রামের আশরাফ উদ্দিনের দোকানের সামনে পৌছালে ষেকানে পূর্বে থেকে ওৎ পেতে থাকা নাংলা গ্রামের ইউনুছ আলী মোল্যার ছেলে শরিফুল ইসলাম ওরফে বাবু ও মধ্যম একরা গ্রামের নুর ইসলাম সানার ছেলে শওকত হোসেন তার গতিরোধ করে। তারা সবুরকে মারপিট করে মটর সাইকেলটি ছিনিয়ে  নেয় এবং তাকে বলে ফারুককে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা থেকে সরে দাড়াতে বলবি, নইলে তাকে গুলি করে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। এঘটনার পর তিনি নিজে বাদী হয়ে উল্লেখিত আসামীদের বিরুদ্ধে আশাশুনি থানায় একটি লিখিত এজাহার দাখিল করেন।
তিনি বলেন, অভিযোগ দেয়ার পর পুলিশ তার ছিনতাই হওয়া মটর সাইকেলটি উদ্ধার করেছে। কিন্তু তার দেয়া এজাহারটি নিয়মিত মামলা হিসাবে এখনো রেকড করেনি। তিনি তার এজাহারটি এফ আই আর হিসাবে গ্রহণ করে আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণে পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন।