সাতক্ষীরায় মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন


147 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন
মে ৬, ২০২১ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের শালিস না মেনে উল্টো তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করে ভিত্তিহীন সংবাদ সম্মেলনের প্রতিবাদে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের আব্দুল মোতালেব মিলনায়তনে উক্ত সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন, সদর উপজেলার দক্ষিণ কুশখালী গ্রামের মৃত দাউদ আলী সরদারের ছেলে জিয়াউর রহমান।
তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত ১৯/০৩/২১ ও ২০/০৩/২১ তারিখে কুখশালী গ্রামের আহম্মদ আলীর ছেলে মাদক চোরাচালানীদের আশ্রয় ও প্রশ্রয় দাতা গোলাম মোস্তফা বাবুর সহযোগী চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী আব্দুস সামাদ, আইজুল ইসলাম, শাহাদাত হোসেন, আজগর আলী, আসাদুল ইসলাম, জাকির হোসেন ও বাবলুসহ কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী ভারত থেকে অবৈধ পথে মাদকের চালান নিয়ে সীমান্তের পাশে থাকা আমাদের বিলান জমি উপর দিয়ে বাংলাদেশের প্রবেশ করে। এসময় তারা আমাদের লাগানো ফসলাদি নষ্ট করে মারাত্মক ক্ষতি করে। এঘটনায় আমার ছোট ভাই রফিকুল ইসলাম ও ভাগিনা শরিফুল প্রতিবাদ করলে বাবুর উক্ত সহযোগীরা বেধড়ক পিটিয়ে আমার ছোট ভাইয়ের হাত ভেঙ্গে দেয়। এ ঘটনায় আমি সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি এজাহার দায়ের করি। এদিকে, এজাহার দায়েরের খবরে বাবু ও তার সহযোগীরা আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে খুন জখমসহ আমার বাড়িতে মাদক রেখে ধরিয়ে দেওয়ার হুমকি প্রদর্শন করে। এছাড়া বাবুর নেতৃত্বে আমার বোনের বাড়ি ঘেরা ও বেড়া দিয়ে তাদের গৃহবন্দি করে রাখা হয়। বিষয়টি মিমাংসার জন্য গত ২৮/০৪/২০২১ কুশখালী ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শ্যামল, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম মোর্শেদ ও ইউপি সদস্যসহ স্থানীয় গণ্যামান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে শালিসী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে আমি নিজেদের স্বার্থ ত্যাগ করে আপোষনামায় স্বাক্ষর করি। পরে পরিষদের চেয়ারম্যান মেম্বররা ওই ঘেরা-বেড়া তুলে দেয়। কিন্তু বাবু উক্ত শালিস না মেনে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজসহ হুমকি ধামকি প্রদর্শন ও উপস্থিত ব্যক্তিবর্গকে অপমানিত করে। অথচ উক্ত ঘটনাকে রং চং মাখিয়ে গত ৫/০৬/২০২১ তারিখে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে হাজির হয়ে বাবু ইউপি চেয়ারম্যান শ্যামল, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম মোর্শেদসহ ইউপি সদস্যদের সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করতে তাদের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনে জঘণ্য মিথ্যাচার করে। আমি উক্ত সংবাদ সম্মেলনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। তিনি আরো জানান, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম মোর্শেদ একটি এতিহ্যবাহী পরিবারের সন্তান। তিনি দীর্ঘদিন অত্যান্ত সুনামের সাথে আওয়ামীলীগের রাজনীতি করে আসছেন। তার বিরুদ্ধে ইতোপূর্বে কোন ধরনের অভিযোগ না থাকলেও তুচ্ছ ঘটনাকে পুঁজি করে নিজের স্বার্থ হাজির করার জন্য বাবু এধরনের জঘণ্য অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। অস্ত্র উচিয়ে হুমকি দেওয়া তো দূরের কথা বাবুকে তিনি কোন ধরনের হুমকি ধামকি প্রদর্শন করেন নি। সংবাদ সম্মেলন থেকে তিনি এ সময় মাদক ব্যবসায়ীদের আশ্রয়দাতা ও মিথ্যা অপপ্রচারের সাথে জড়িত গোলাম মোস্তফা বাবুর বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

#