সাতক্ষীরায় মুন্ডা জনগোষ্ঠির মানবাধিকার রক্ষায় নেটওয়াকিং সভা


430 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় মুন্ডা জনগোষ্ঠির মানবাধিকার রক্ষায় নেটওয়াকিং সভা
মার্চ ৩, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল আলম মুন্না ::

রবিবার বেলা ১১ টায় বেসরকারী সংগঠন স্বদেশ এর কার্যালয়ে পিছিয়েপড়া জনগোষ্ঠী আদিবাসী মুন্ডা সম্প্রদায়ের মানবাধিকার সুরক্ষা বিষয়ক জন্য এক নেটওয়াকিং সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন স্বদেশ এর নির্বাহী পরিচালক মাধব চন্দ্র দত্ত। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ভিশনের নির্বাহী পরিচালক অপরেশ পাল।
রিলিফ ইন্টান্যাশনালের আয়োজনে এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের আর্থিক সহযোগীতায় অনুষ্ঠানে আয়োজনকারী প্রতিষ্ঠানের প্রোগ্রাম অফিসার দিপঙ্কর সাহার সঞ্চালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন বেসরকারী সংগঠন ক্রিসেন্টের নির্বাহী পরিচালক আবু জাফর সিদ্দিকী, সিডোর নির্বাহী শ্যামল বিশ্বাস, বরসা’র সহকারী পরিচালক মোঃ নাজমুল আলম মুন্না এবং সাংবাদিক ফারুক রহমানসহ আদিবাসী মুন্ডা সম্প্রদায়ের ১০ জন নারী-পুরুষ। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা সদর, তালা ও শ্যামনগর উপজেলার আদিবাসী (এইচআরডিএস) গ্রুপের সভাপতি গোপাল চন্দ্র মুন্ডা, জগদিশ মুন্ডা, রামপ্রসাদ মুন্ডা, মনোতোষ মুন্ডা এবং টুম্পা মুন্ডা। তারা অভিযোগ করে বলেন আমরা সাতক্ষীরায় প্রায় ৫ হাজার মুন্ডা সম্প্রদায়ের মানুষ বসবাস করি । তবুও আমাদেরকে কেউ মানুষ ভাবতে চায়না। আমরা সবার কাছে অবহেলিত। অনাদরে-অনাহারে থাকলেও আমাদের কেউ খোজ খবর নেয়না। আমরা ৩শ বছর আগে যখন এ অঞ্চলে কেউ বসরবাস করতো না তখন সুন্দরবন অঞ্চলে জঙ্গল কেটে বসতি স্থাপন করে বসবাস এবং জীবিকা নির্বাহ করে আসছি। কিন্তু এখন আমাদেরকে আর কেউ বসবাস করতে দিতে চায়না। আমাদের বসবাসের যায়গাটুকু কেড়ে নিতে চায়। আমরা লেখাপড়ায় অনেক পিছিয়ে রয়েছি। আমরা লেখাপড়া শিখে সামাজিকভাবে বসবাস করতে চাই- নেতৃত্ব দিতে চাই। আমার আমাদের অধিকার চাই। অধিকার নিয়ে বাচতে চাই। আমরা কারো কাছে কোন কাজ বিংবা অবিযোগ নিয়ে গেলে সবার পিছনে ফেলে দেয়। আমরা আমাদের বেচে থাকার অধিকার চাই। চাই সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের সহযোগীতা। আমরা আমাদের সন্তানদেরকে স্কুলমুখী করেছি কিন্তু সেখানেও অনেক প্রতিবন্ধকতা রয়েছে। আমাদের সন্তানদের পাশে কেউ বসতে নিতে চায়না। আমাদের মুন্ডা সম্প্রদায়কে সরদার বানিয়ে অনেকে আমাদের বসতী যায়গা দখলের পায়তারা করছে। তারা সবাই ভূমি আইনের সংশোধনের জন্য জোর দাবি জানান। উপস্থিত অতিথিবৃন্দ এই আয়োজনকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন আমরা যারা মানবাধিকার কর্মী তারা সব সময় সকল পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী বা আদিবাসীদের পক্ষে ছিলাম, রয়েছি এবং ভবিষ্যতেও থাকার অঙ্গিকার করেন।

#