সাতক্ষীরায় সম্পত্তি দখলের প্রতিবাদে এক ব্যক্তির সংবাদ সম্মেলন


293 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় সম্পত্তি দখলের প্রতিবাদে এক ব্যক্তির সংবাদ সম্মেলন
অক্টোবর ২৭, ২০১৮ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার ::
আদালতের আদেশ অমান্য করে প্রভাবশালী কর্তৃক সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটায় জোরপূর্বক এক ব্যক্তির সম্পত্তি দখল করে সেখানে ঘরবাড়ি নির্মাণ ও জমির মালিককে জীবন নাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন পাটকেলঘাটা থানার জুজখোলা গ্রামের মৃত মাদার মোড়লের ছেলে আব্দুল আজিজ মোড়ল।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, তালা উপজেলার ভারসা মৌজার সি,এস-৩৭৯ এবং এস,এ-২৭ খতিয়ানের ৪৮০ ও ৪৮৩ দাগের মোট ১ একর ৬৩ শতকের মধ্যে ৬০ শতক জমি নিয়ে তার (আজিজ মোড়ল) ভাই আব্দুর রহিম মোড়লের সাথে বিরোধ চলে আসছে। বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য ২০০০ সালের ২৫ জুলাই তিনি তালা সহকারি জজ আদালতে ৬৯/২০০০ নং একটি দেওয়ানী মামলা দায়ের করেন। ২০১৭ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর আদালতের ১৫৭ নং এক আদেশে উক্ত ৬০ শতক জমিতে তিনি ডিগ্রী পান। এর পর বিবাদী ভাই আব্দুর রহিম স্থানীয় সরুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান ও তার ছোট ভাই উপজেলা ভাইচ চেয়ারম্যান মোঃ ইখতিয়ার হোসেনের নেতৃত্বে আমার বসতবাড়ির সীমানায় জবর দখলের উদ্দেশ্যে ঘরবাড়ি নির্মাণের জন্য গত ২১ অক্টোবর বিকাল ৪টার দিকে ইট, বালু ও সিমেন্ট নিয়ে রাখে। এসময় আমি প্রতিবাদ করলে চেয়ারম্যান ও তার ভাই আমাকে খুন-জখম এবং মিথ্যে মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করার ভয় দেখায়। নিরুপায় হয়ে গত ২৩ অক্টোবর সাতক্ষীরা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৪৫ ধারা মতে ১৫২৬/১৮ নং একটি পিটিশন মামলা দায়ের করলে আদালত শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য পাটকেলঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জকে নির্দেশ দেন।
তিনি অভিযোগ করে বলেন, দেওয়ানী আদালতের ডিগ্রী ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের আদেশ অমান্য করে ইউপি চেয়ারম্যান ও তার ভাইয়ের নেতৃত্বে আমার ভাইপো আব্দুল হান্নান ওরফে হানু, শাহাজান ও রাহাজানসহ ১৫/২০ জনের একদল জবরদখলকারি আমার বাড়ির সীমানার মধ্যে জোরপূর্বক ঘরবাড়ি নির্মাণ করছে। এসময় বাধা দিতে গেলে আমার ভাইপো আব্দুল হান্নান ধারালো দা নিয়ে আমাকে খুন জখম করতে আসলে আমি পালিয়ে জীবন রক্ষা করি। এঘটনায় পাটকেলঘাটা থানায় অভিযোগ দিতে গেলে ওসি অপারগতা প্রকাশ করলে আমি প্রতিবেশী মুক্তিযোদ্ধা মুজিবর রহমানকে সঙ্গে নিয়ে ঘটনা পুলিশ সুপারকে জানাই।
তিনি এসব ঘটনার প্রতিকার দাবি করে উল্লেখিতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
##