সাতক্ষীরায় সরকারের সাফল্যগাঁথা ‘ভিশন ২০২১’ দুই ঘন্টার অনুষ্ঠান তিন মিনিটেই শেষ !


302 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় সরকারের সাফল্যগাঁথা ‘ভিশন ২০২১’ দুই ঘন্টার অনুষ্ঠান তিন মিনিটেই শেষ !
ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
দুই ঘন্টার অনুষ্ঠান মাত্র তিন মিনিটেই শেষ হয়ে গেলো। সরকারের সাফল্য অর্জন ও উন্নয়ন ভাবনা নিয়ে জেলা তথ্য অফিস আয়োজিত এ অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি এতে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করেন।

বৃহস্পতিবার বিকাল ৩ টায় ‘ ভিশন ২০২১ ’ শীর্ষক আলোচনা সভা সদর উপজেলা মিলনায়তনে শুরু হয়। খানিকক্ষন বসার পর শুরু হয় জারি গান। এরই মধ্যে প্রধান অতিথি অনুষ্ঠানস্থলে হাজির হয়ে দেখতে পান অগোছালো অবস্থা। তিনি দর্শক সারিতে কিছুক্ষন বসে  সরাসরি মঞ্চে উঠে উপবেশন না করেই  মাইক্রোফোন হাতে নেন।

এসময় তিনি বলেন ‘ বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে জারি গান হচ্ছে অথচ দর্শক শ্রোতা নেই।জেলা প্রশাসকের সভাপতিত্ব করার কথা তিনি কোথায়। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান , ভাইস চেয়ারম্যান , ইউএনও কেউ নেই তারা কোথায় প্রশ্ন রাখেন তিনি।

সরকারের সাফল্যগাঁথার এমন একটি অনুষ্ঠানের নামে প্রহসন করা হয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন এটি উদ্দেশ্যমুলক কিনা তা খতিয়ে  দেখতে হবে’। এমন একটি অনুষ্ঠান আউটডোর না করে ইনডোর কেনো করা হলো তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি। এসময় মঞ্চে ছিলেন সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. হাবিবুর রহমান , পৌর কাউন্সিলর  জোসনা আরা ও জেলা তথ্য অফিসার সিরাজুল হক মল্লিক । আর দর্শক সারিতে ছিলেন দুইজন সাংবাদিক , এসি ল্যান্ড মনিরা খাতুন,মহিলা পরিষদের সভানেত্রী মমতাজ বেগম ও সম্পাদক জোসনা দত্তসহ  তথ্য অফিসের কয়েকজন কর্মচারি।

সর্বোচ্চ তিন মিনিট কথা বলে ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়ে ফিরে  যান সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি। এসময় শ্রোতাশূন্য হলে ফের শুরু হয় জারি গান।

বিকাল ৪ টা নাগাদ জেলা প্রশাসক আবুল কাসেম মো. মহিউদ্দিন অনুষ্ঠানস্থলে আসেন। জানতে পারেন সংসদ সদস্য তার আগেই চলে গেছেন। উপজেলা মিলনায়তন  দর্শক শ্রোতাশুন্য। করিডোরে দাঁড়িয়েও দেখা পেলেন না তথ্য অফিসারের । অবশেষে তথ্য অফিসার ছুটে এসে তাকে বলেন এমপি সাহেবের ক্ষোভের কথা। জেলা প্রশাসক বলেন ‘সরি আমি অন্য একটি প্রোগ্রামে ব্যস্ত  ছিলাম।এমপি সাহেব যেহেতু চলেই গেছেন , তাই  আর অনুষ্ঠানে যাবার দরকার নেই’।তথ্য অফিসার সিরাজুল হক মল্লিক জানান  এ অনুষ্ঠানে তিনি ১৫০ জনকে কার্ড দিয়ে দাওয়াত করেছিলেন।কেউ না আসায়  তিনি নিজেও দুঃখ প্রকাশ করেন।
এর আগে বুধবার তথ্য অফিসার সিরাজুল হক মল্লিক সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের  বৃহস্পতিবারের অনুষ্ঠানে দাওয়াত দিতে আসেন ।এসময় তিনি সরকারের সাফল্যের  কথা জানাতে ব্যয় করেন পাঁচ মিনিট। এদিন সাংবাদিকদের হাতে লাঞ্চ প্যাকেট ধরিয়ে দিয়ে বিদায় নেন তিনি।
তথ্য অফিসার দুঃখ প্রকাশ করে বলেন ‘ সদর ইউএনও বিদেশে, চেয়ারম্যান ঢাকায় , ভাইস চেয়ারম্যান দুর্ঘটনায় আহত হয়ে চিকিৎসাধীন। এজন্য অনুষ্ঠান সফল হতে পারেনি’।