সাতক্ষীরায় সরল বিশ্বাসে ছোট বোনের নামে লিখে দেয়া জমি ফেরত পাওয়ার দাবিতে সংবাদ স্মেলন


347 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় সরল বিশ্বাসে ছোট বোনের নামে লিখে দেয়া জমি ফেরত পাওয়ার দাবিতে সংবাদ স্মেলন
অক্টোবর ১, ২০১৫ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

ব্যাংক লোন পাইয়ে দেয়ার জন্য স্বামীর জমি ফেরত দেয়ার স্বত্বে আপন ছোট বোনের নামে রেজিস্ট্রি করে দেয়ার পর ওই জমি আর ফেরত দিচ্ছে না। উপরোন্ত বাড়িতে লোক পাঠিয়ে স্বামী ও সন্তানকে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে ছোট বোন ও তার লোকজন। বৃহস্পতিবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন সাতক্ষীরা পৌর সভার কুখরালী আমতলা এলাকার রফিকুল ইসলামের স্ত্রী জিন্নাতুল নাহার।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জিন্নাতুল নাহার বলেন, সাতক্ষীরা শহরের আমিনিয়া মার্কেটে তার আপন ছোট বোন মোছাঃ বদরুল নাহার দিপা’র এ,টি ফ্যাশন নামে একটি কাপড়ের দোকান আছে। কিন্তু বোনের নামে সাতক্ষীরায় কোন জমি না থাকায় তার (ছোট বোন) স্বামী আ,ব,ম খুরশিদুজ্জামান ব্যবসা পরিচালনার জন্য ব্যাংক থেকে লোন নিতে পারছিলেন না। এক পর্যায় ছোট বোন দিপা তার (জিন্নাতুল) বাড়িতে এসে কান্নাকাটি করতে থাকে। দিপার কান্নাকাটি দেখে তার দুলাভাই রফিকুল ইসলাম তার নিজের নামীয় জমি ব্যাংকে মর্টগেজ দিতে চাইলে সে বলে যে, জমি তার নিজেরে নামে লিখে দিতে হবে। শালিকার কথা ভেবে সরল বিশ্বাসে তার স্বামী রফিকুল ইসলাম রামদেবপুর মৌজার এস,এ ৯৩৬ খারিজ-৯৩৬/১ নং আর,এস,বি,এস,-৪৩১ নং খতিয়ানের সাবেক ২২৭৪ ও হাল ৩৬৪৯ দাগে মোট সাড়ে ৯  শতক জমি দিপার নামে বিনা টাকায় কোবলা দলিল করে দেয়। দলিল রেজিস্ট্রির একই দিনে ছোট বোন দিপা তার দুলাভাই রফিকুলের নামে রেজিঃ বিহিন অপর একটি দলিল করে দেয়। জমি রেজিঃকালে এক বছর পর ব্যাংকের টাকা শোধ করে তার স্বামীর জমি ফেরত দেয়ার কথা ছিল।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, এক বছর তার স্বামী ছোট বোন দিপার কাছে জমি ফেরত চাইলে সে গড়িমশি শুরু করে দয়ে। এক পর্যায় জমি ফেরত দেয়ার জন্য সে দুই লাখ ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। এসময় তার মা এসে মিমাংশা করে দিয়ে বলে তুই এক লাখ টাকা দিবে আর দিপা জমি রেজিস্ট্রি করে দিবে। তাতে তার ছোট বোন রাজি হয়। কিন্তু গত ৩০ সেপ্টেম্বর ১৫‘ বিকাল সাড়ে ৫ টার দিকে দুইজন অপরিচিত লোক তাদের বাড়িতে এসে জমি কেনার কথা বলে তার স্বামীকে খোজাখুজি করতে থাকে। তাদেরকে জিজ্ঞাসা করলে জানায় তার ছোট বোন তাদেরকে পাঠিয়েছে। রাত সাড়ে ৭ টার দিকে আরো চারজন লোক এসে তার স্বামী ও ছেলে  আবিদ হোসেনকে খুজতে থাকে। কিন্তু তখন তারা বাড়িতে ছিল না। তারা জানায় জমির দখল না দিলে তার স্বামী ও ছেলেকে তারা মেরে ফেলবে। এক পর্যায় তারা গালিগালাজ করে বাড়ি ছাড়ার হুমকি দিয়ে চলে যায়।

উক্ত জমি যাতে কেউ ক্রয় করতে না পারে এবং ছোট বোনের কাছ থেকে যাতে তার স্বামী জমি ফেরত পেতে পারে তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার সহ সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

পে¯্র বিজ্ঞপ্তি