সাতক্ষীরায় সাংবাদিকতার নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজি করতে যেয়ে দুই প্রতারক আটক !


679 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় সাংবাদিকতার নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজি করতে যেয়ে দুই প্রতারক আটক !
নভেম্বর ১১, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

ঝাউডাঙ্গা প্রতিনিধি :
চাঁদাবাজির অভিযোগে শুক্রবার রাত ৮ টায় সাতক্ষীরা সদর উপজেলার তুজলপুর গ্রামের আমজেদ হোসেন (৪০) ও জাহাঙ্গীর হোসেন নামের দুই ব্যাক্তিকে আটক করেছে সদর থানার পুলিশ।

জানাগেছে, আটককৃত ব্যাক্তি সহ কয়েকজন যুবক কিছুদিন যাবত বিভিন্ন পত্রিকার সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে রামেরডাঙ্গা গ্রামের আনিছউদ্দিনের কাছে চাঁদা দাবি করে আসছিল। চাঁদার টাকা নেয়ার সময় স্থানীয় জনতা তাদেরকে আটক করে পুলিশের কাছে সোর্পদ করে।

আনিছউদ্দিন অভিযোগ করে বলেন“ গত কয়েকদিন আগে ৪ জন ব্যাক্তি আমার বাড়িতে এসে বলেন, আমরা সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের প্রতিনিধি। তখন তারা দৈনিক দক্ষিণের মশাল, দৈনিক কাফেলা, দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা এবং দৈনিক কালের চিত্র পত্রিকার সাংবাদিক বলে পরিচয় দেয়। জাহাঙ্গীর হোসেন ও আমজেদ হোসেন আমাকে বলে আপনি যদি ১০ হাজার টাকা দেন তাহলে আপনার বিরুদ্ধে কোন নিউজ করবো না। আর না দিলে পুলিশ এখনি আপনাকে ধরে নিয়ে যাবে। তাছাড়া তারা আমাকে একটি মোবাইল নাম্বার দিয়ে রাতে কথা বলতে বলে। আমি তাদের সাথে ঐ নাম্বারে কথা বললে আমার কাছে ১০ হাজার টাকা দিতে বলে এবং ৬ মাস পরে আরো ১০ হাজার টাকা দিতে হবে বলে জানিয়ে দেয়।  তখন আমি এলাকার কয়েকজন গণ্যমান্য ব্যাক্তিকে বিষয়টি জানায়। ভিকটিম আনিছউদ্দিন আরো বলেন আমি কোন অবৈধ কাজের সাথে জড়িত না।

এলাকাবাসী থেকে জানা যায় বিভিন্ন পত্রিকার নাম ভাঙিয়ে চাঁদা দাবি করে এবং চাঁদার টাকা নেয়ার সময় জনগন জাহাঙ্গীর ও আমজেদকে হাতে নাতে আটক করি। পরে  পুলিশকে বিষয়টি জানায়। পুলিশ এসে তাদেরকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

এ ব্যাপরে রামেরডাঙ্গা ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুর গফুর বলেন, তুজলপুর গ্রামের দু’জন সাংবাদিকতার পরিচয় দিয়ে টাকা দাবি করার সময় জনগণ তাদেরকে ধরে পুলিশের কাছে সোর্পদ করে।

সাতক্ষীরা সদর থানার পলিশ সূত্র থেকে জানা যায় সাংবাদিকতার নামে কয়েকজন ব্যাক্তি চাঁদা দাবি করছিল রামেরডাঙ্গার আনিছউদ্দিনের কাছে। চাঁদা নেয়ার সময় জনগন তাদেরকে হাতেনাতে আটক করে। পরে আটককৃত দু’জনকে থানায় নিয়ে আসি। আইন অনুযায়ি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করবো।