সাতক্ষীরায় স্ত্রীকে নিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে সংসার করার দাবিতে আইনজীবী সহকারীর সংবাদ সম্মেলন


310 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় স্ত্রীকে নিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে সংসার করার দাবিতে আইনজীবী সহকারীর সংবাদ সম্মেলন
এপ্রিল ২, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার : স্ত্রীকে নিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে সংসার করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন পুরাতন সাতক্ষীরার দক্ষিণপাড়ার আইনজীবী সহকারী শেখ কামরুল ইসলাম। শনিবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি এই দাবি জানান। এ সময় লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত ৯ জানুয়ারি ইসলামী শরীয়াহ মোতাবেক শহরের সুলতানপুর সাহাপাড়ার মুজিবুর রহমান খানের মেয়ে অলিমা খাতুনের সঙ্গে তিনি বিয়ে করেন।

এরপর গত ৬ ফেব্রুয়ারি চাচার বাড়িতে বেড়াতে যাওয়ার নাম করে অলিমা খাতুন ও তার বড় বোন নাজমা আমার দেওয়া সকল জিনিসপত্র নিয়ে বাপের বাড়ি চলে যায়। পরে আমরা বহুবার চেষ্টা করেও তাকে নিয়ে আসতে পারেনি। ওইসময় তাদের পক্ষ থেকে বলা হয় অলিমা খাতুনের সাথে সংসার করতে হলে তাদের বাড়ির পাশে ঘরভাড়া করে থাকতে হবে। এর ব্যত্যয় হলে দেন মোহরের টাকা দিয়ে ছেড়ে দেওয়াসহ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দিয়ে হয়রনির হুমকি দেওয়া হয়। এ ঘটনায় আমি ১৩ ফেব্রুয়ারি থানায় জিডি করি।

২৪ ফেব্রুয়ারি স্ত্রীকে উদ্ধারের জন্য আদালতে ১০০ ধারায় মামলা দায়ের করি। ২ মার্চ আমাকে আবারও হুমকি দেওয়া হয়। এ ঘটনায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করলে বিয়ের ঘটক ও স্ত্রীর আত্মীয় সামছুর রহমান আমাকে হাত-পা ভেঙে দেওয়ার হুমকি দেয়।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, গত ৬ মার্চ অলিমা খাতুন আমার বিরুদ্ধে পৌরসভায় হয়রানিমূলক মামলা দায়ের করে। ১১ মার্চ থানায় আমার বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনের অভিযোগ দেয়। গত ২৮ মার্চ এসব ব্যাপারে কাউন্সিলর শেখ সেলিমের উপস্থিতিতে শালিস হলে আমি স্ত্রীকে নিয়ে ঘর-সংসার করার কথা বললেও আওয়ামী লীগ নেতা আবু সায়ীদ বলে, সংসার-টংসার হবে না। দেন মোহরের টাকা দিয়ে ছেড়ে দিবি। ২৯ মার্চের মধ্যে সব মামলা তুলে নিবি। আমি এর প্রতিবাদ করলে আমাকে মারপিট করেন তিনি। ওই শালিসে প্রতিবেশি বাবলু, গোলাম ও মিলন রায়ও উপস্থিত ছিলেন। বর্তমানেও আমাকে আওয়ামী লীগ নেতা আবু সায়ীদ লোক পাঠিয়ে হুমকি-ধামকি দিচ্ছেন।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ ঘটনায় পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা ও স্ত্রীকে নিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে সংসার করার দাবিতে সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। ##