সাতক্ষীরায় স্বাস্থ্য বিভাগের নৈরাজ্যে উদ্বেগ প্রকাশ করে ডা. রুহুল হক এমপির ফেসবুক স্টাটাস


298 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় স্বাস্থ্য বিভাগের নৈরাজ্যে উদ্বেগ প্রকাশ করে ডা. রুহুল হক এমপির ফেসবুক স্টাটাস
মে ২৬, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

ডেস্ক রিপোর্ট ::

জেলার ২২ লক্ষ মানুষের স্বাস্থ্য বিভাগের নৈরাজ্য নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সাবেক সফল স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী সাতক্ষীরা-৩ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. আ. ফ. ম রুহুল হক। শনিবার সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজের সেফটি ট্যাংকি পাশে মাটির নিচ থেকে ১০ বস্তা সরকারি ওষুধ উদ্ধার হওয়ার পর তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তার ব্যক্তিগত আইডিতে এ উদ্বেগ প্রকাশ করেন। ফেসবুক স্টাটাসে তিনি লিখেছেন, ‘সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ ও ডিস্ট্রিক্ট হাসপাতাল সম্বন্ধে যে সকল তথ্য বেরিয়ে এসেছে, তা দেখে সত্যিই খারাপ লাগে।
জননেত্রী শেখ হাসিনা কষ্ট করে সাধারণ মানুষের সেবার জন্য হাসপাতাল তৈরি করেন, ওষুধ পাঠান গরিবের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উন্নতির জন্য, দুর্বৃত্তরা সাধারণ মানুষের ভালো চায় না, শুধু নিজেদের পকেট এর ভর্তি কি করে হবে সেই ব্যবস্থার জন্য ব্যস্ত থাকে। আমাদের সকলের দায়িত্ব যারা এ সকল কাজের সাথে জড়িত তাদেরকে ধরিয়ে দেওয়া, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, দুদক, ইন্টেলিজেন্স এজেন্সি কর্মকর্তাদের আমি অনুরোধ জানাচ্ছি, সকলে মিলে এগিয়ে আসুন। সাতক্ষীরা জনগণের প্রতি আমার আহবান, আপনারা সকলে মিলে এই দুর্বৃত্তদের ধরিয়ে দিন। জননেত্রী শেখ হাসিনাকে সাহায্য করুন। দুবর্ৃৃত্তদের হাত থেকে দেশকে মুক্ত করুন। সাতক্ষীরাকে দুর্বৃত্তদের হাতে হাত থেকে মুক্ত করতে হলে সকলে মিলে একসাথে কাজ করতে হবে। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু। প্রসঙ্গত: এর আগে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে যন্ত্রাংশ ক্রয়ে ১৮ কোটির টাকার দুর্নীতি সংক্রান্ত খবর প্রকাশ হলে দেশ জুড়ে ব্যাপক সমালোচনা হয়। সেই সমালোচনার রেশ থাকতেই সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজে মাটির নিচ থেকে বিপুল পরিমাণ সরকারি ওষুধ বেরিয়ে আসায় জেলা জুড়ে স্বাস্থ্য সেবা নিয়ে শুরু হয়েছে সমালোচনার ঝড়। জেলার সকল পর্যায়ের নাগরিককে এ ব্যাপারে ঐক্যবদ্ধ থেকে দুর্নীতি প্রতিরোধে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান সাবেক স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডা. আ. ফ. ম রুহুল হক এমপি।