সাতক্ষীরায় হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন


120 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
মার্চ ২৪, ২০২১ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার ::

সাতক্ষীলা সদরের রইচপুরে হত্যা মামলার আসামী মনিরুজ্জামান ভ্যাদলের নেতৃত্বে অসহায় পরিবারের সম্পত্তি দখলের উদ্দেশ্যে মিথ্যা মামলায় হয়রানি এবং খুন জখমসহ বিভিন্ন হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত লিখিত বক্তব্যে এ অভিযোগ করেন, রইচপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলামের স্ত্রী শরিফা খাতুন।
তিনি বলেন, আমরা অত্যান্ত নিরিহ প্রকৃতির গরিব মানুষ। বিগত ২০/২৫ বছর পূর্বে ১০টি পরিবার খন্ড খন্ড করে রইচপুর এলাকায় জমি ক্রয় করে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করে আসছিলাম। সম্প্রতি একই এলাকার মৃত লোকমানের সরদারের পুত্র হত্যা মামলার আসামী মনিরুজ্জামান ভ্যাদল, মো: নজরুল ইসলাম ও আনারুল ইসলাম, মো: বাদশা সরদারের পুত্র শাহাদাত হোসেন, শাহাজাহান হোসেন ও নজরুল ইসলামের পুত্র নাঈম, মৃত. কেলমাহুলের পুত্র সালাম, ভোলাই সরদারেরপুত্র হাফিজুল, রাফিকুল ইসলাম পাতলার পুত্র তৌহিদুজ্জামান, মোলান্দ সরদারের পুত্র আশরাফ হোসেন, মালেক মোড়লের পুত্র রফিকুল ইসলাম উক্ত সম্পত্তি দখলের চক্রান্ত করতে থাকে। এটা নিয়ে শালিসী মিমাংসাও হয়। কিন্তু শালিসনামা না মেনে উল্লেখিত ব্যক্তিরা জোরপূর্বক আমাদের সম্পত্তি দখলের জন্য প্রকাশ্যে খুন জখমসহ বিভিন্ন হুমকি ধামকি প্রদর্শন করতে থাকে। একপর্যায়ে গত ২২ মার্চ ২০২১ তারিখে মনিরুজ্জামান ভ্যাদলের নেতৃত্বে ৮/১০ জনের সন্ত্রাসী বাহিনী আমাদের বাড়িতে হামলা চালায়। অথচ উল্টো তারা ৪/৫ জন হাসপাতালে ভর্তি আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা হামলা দায়ের করে। মারপিটের সময় আমাদের ডাক চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এসে তাদের কবল থেকে আমাদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। ওই মারপিটের ঘটনায় ভ্যাদলের ভাই আনারুল ইসলাম বাদী হয়ে আমাদের ১০ জনকে আসামী করে সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে। উক্ত মামলায় আমার স্বামীর ভাই এবং দুই মামাকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করে পুলিশ। উক্ত মিথ্যা মামলায় আমাদের পরিবারে ৩ জন পুরুষ জেল হাজতে আর বাকী পুরুষরা গ্রেফতারের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। যে কারণে বর্তমানে আমাদের ১০টি পরিবার পুরুষ শূণ্য হয়ে পড়েছে। বাড়িতে শুধুমাত্র মহিলা ও শিশুরা রয়েছে। এ সুযোগে উল্লেখিত হত্যা মামলার আসামী মনিরুজ্জামান ভ্যাদল ও তার সহযোগীরা প্রতি রাতে আমাদের বাড়িতে গিয়ে বাড়ির মহিলাদের ধর্ষনসহ খুন জখমের হুমকি ধামকি প্রদর্শন করে যাচ্ছে। তাদের ভয়ে আমাদের পরিবারের ছোট ছোট বাচ্চারাও বাড়ির বাইরে যেতে পারছে না। তাদের ভয়ে আমাদের ১০টি পরিবারের মহিলা রাতে বাড়িতে থাকতেও ভয় পাচ্ছেন। এই মনিরুজ্জামান ভ্যাদল গত বছর ইজিবাইক চালক কিশোরকে হত্যা করে ইজিবাইক ছিনিয়ে নেওয়ার মামলার অন্যতম আসামী। উক্ত হত্যাকারী মনিরুজ্জামান ভ্যাদল যে কোন সময় সন্তানসহ আমাদের খুন জখম করতে পারে। বিশেষ করে রাতে ওই মনিরুজ্জামান ভ্যাদল বাহিনীর অত্যাচারে আমরা ১০টি পরিবারের মহিলারা অতীষ্ট হয়ে উঠেছি। আমরা ওই হত্যাকারী ভ্যাদল বাহিনীর অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে এবং পুরুষদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তিনি।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, মোছা: সুফিয়া খাতুন, মাহফুজা খাতুন, মৌসুমী খাতুন, শরিফা খাতুন, জাহানারা খাতুন, আক্তার বিথী ও বিউটি খাতুন।

#