সাতক্ষীরায় হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন


188 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
এপ্রিল ২৯, ২০২১ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

প্রেস বিজ্ঞপ্তি ::

মাত্র ২ শতক জমি ক্রয় করে ৪ শতক জোরপূর্বক দখলের উদ্দেশ্যে একাধিক মামলার আসামী আনিছুর কর্তৃক মারপিট, জীবন নাশের হুমকি ও অপপ্রচারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের আব্দুল মোতালেব মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সাতক্ষীরা কালিগঞ্জের পূর্বনলতা গ্রামের মৃত আব্দুল মাজেদের ছেলে আব্দুর রশিদ। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন ২০১২ সালে নলতা মৌজায় নলতা বাজারের দক্ষিণ পাশের্^ এস এ রেকর্ডীয় মালিক বিশ^নাথ সরকার, নিলু সরকার, কেদার সরকার ও হযরত আলীর কাছ থেকে ৮.৩৩ শতক জমি ক্রয় করি। একই দাগে নিলু সরকার ও কেদার সরকারের কাছ থেকে পশ্চিম নলতা গ্রামের মৃত এবিএম গোলাম মোস্তফার পুত্র আনিছুর রহমান দুই শত সম্পত্তি ক্রয় করেন। কিন্তু পর সম্পদ লোভী আনিছুর রহমান দুই শতক জমি ক্রয় করলেও জোরপূর্বক ৪শতক সম্পত্তি দখলের পায়তারা শুরু করে। এটা নিয়ে স্থানীয় আওয়ামীলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ জনপ্রতিনিধিদের কাছে অভিযোগ দেওয়া হলে পক্ষে কাগজপত্র দেখানোর কথা বললেই আনিছুর রহমান আর হাজির হননা। তিনিই অভিযোগ করে আবার কাগজপত্র দেখানোর কথা হলে এবং জমি মাপ জরিপে কথা হলে তিনি আসেন না। অথচ গত আমাদের সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করতে গত ২৫ এপ্রিল ২০২১ তারিখে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে হাজির হয়ে মিথ্যা, ভিত্তিহীন কাল্পনিক অভিযোগ উত্থাপন করে একটি সংবাদ সম্মেলন করে। সেখানে আনিছুর রহমান উল্লেখ করেছেন গুন্ডা ফজলুকে আমি পাঠিয়েছি। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে আনিছুর নিজেই ফজলুকে ভাড়া সেখানে পাঠিয়েছিল এবং প্রচার দিতে বলেছিল আমি পাঠিয়েছি। আমি উক্ত ভিত্তিহীন সংবাদের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। তিনি আরো বলেন আনিছুর মারপিট ও জমি-জমা সংক্রান্ত বিষয়ে একাধিক মামলার আসামী। বর্তমানে তার বিরুদ্ধে কালিগঞ্জ থানায় জি আর ১৩৪/১৯, জি আর ৬৫, ১৭ ও জি আর ২২/১৯ নং মামলা হয়েছে। ইতোমধ্যে কয়েকটি মামলায় তিনি জেল খেটেছেন। সে কালিগঞ্জ উপজেলার শৈলপুর প্রাইমারি স্কুলের প্রধান শিক্ষক হিসেবে চাকুরিরত ছিলেন। সেখানে একজন মহিলার সাথে বাজে আচরণ করায় এলাকাবাসীর আনিছুর রহমানের বিরুদ্ধে ঝাটা মিছিল করে তাকে ওই বিদ্যালয় থেকে বিতাড়িত করতে বাধ্য করে। এমনকি তার আপোন চাচাতো প্রতিবন্ধী ভাইয়ের সম্পত্তিও জোরপূর্বক দখল করে নিয়েছে। তাদের বাড়িতে আগুন দিয়ে জ¦ালিয়েও দিয়েছে। এছাড়া এলাকার একাধিক অসহায় মানুষের সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল করে রেখেছে।
আনিছুর রহমান নিজেই একজন মামলাবাজ ব্যক্তি। জোরপূর্বক সম্পত্তি দখল করতে নিরিহ মানুষের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করে চলেছে। এব্যাপারে তিনি পর সম্পদ লোভী আনিছুরের কবল থেকে ক্রয়কৃত সম্পত্তি রক্ষা এবং মিথ্যা হয়রানি থেকে পরিত্রান পেতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

#