সাতক্ষীরা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক বরাবর শিশুর প্রতি সহিংসতা বন্ধের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান


2149 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক বরাবর শিশুর প্রতি সহিংসতা বন্ধের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান
আগস্ট ৮, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

আবু ছালেক ::

বৃহস্পতিবার দুপুর ২ টার সময় সাতক্ষীরা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এর কার্যালয়ে, জাতীয় কন্যাশিশু এডভোকেসি ফোরামের উদ্যোগে, সাতক্ষীরা জেলার সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজন সাতক্ষীরা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক শেখ হেদায়েতুল ইসলাম এর নেতৃত্বে, শিশুর প্রতি সহিংসতা বন্ধের দাবিতে, সাতক্ষীরা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক মো: বদিউজ্জামান বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। এসময় সঙ্গে ছিলেন দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-এর সাতক্ষীরা জেলা সমন্বয়কারী মোহাম্মদ আনিসুর রহমান, এডভোকেট সেলিনা আক্তার শেলি, হাসিনা খাতুন পুতুল , স্মারকলিপিতে উল্লেখ ছিল অ্যাডভোকেসি ইন বাংলাদেশ ১০ টি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থার সমন্বয়ে গঠিত একটি জোট,যা ২০১৩ সাল থেকে কাজ করছে, কোয়ালিশন বাংলাদেশ শিশু অধিকার পরিস্থিতি উন্নয়নে, জাতিসংঘ শিশু অধিকার সনদ এবংএবং ইউনিভার্সাল পিরিওডিক রিভিউ (ইউ পি আর) এর আওতায় প্রদত্ত অঙ্গীকারসমূহ বাস্তবায়নের অগ্রগতি পর্যবেক্ষণ করে থাকে এবং সে অনুযায়ী সরকারের সঙ্গে অ্যাডভোকেসি করে থাকে, শিশুর প্রতি হিংসতা রোধে কলিশন প্রতিজ্ঞাবদ্ধ, শিশুর প্রতি সহিংসতা আচরণ আমাদের দেশে কোনো নতুন ঘটনা নয়, আমরা লক্ষ্য করেছি অতি তুচ্ছ কারণে শিশুরা প্রায়শই পরিবার, কর্মক্ষেত্র কিংবা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সর্বত্র শারিরিক, মানসিক ও যৌন নির্যাতনের শিকার হয়, শিশুহত্যা ও ধর্ষন একটি নিত্য নৈমত্বিক বিষয় পরিনত হয়েছে। লক্ষনিয় যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিশুর শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যী রহিতকরণে উচ্চ আদালতের নির্দেশনা ও সরকারের এ সংক্রান্ত পরিপত্র জারি সত্বেও এ সকল প্রতিষ্ঠানে ও শিশুকে শারীরিক ও মানসিক শাস্তি প্রদান অব্যাহত রয়েছে,কোয়লিশনের মিডিয়া মনিটরিং অনুযায়ী চলতি বছরের এ সহিংসতা বিগত বছর তুলনায় বেড়েছে। এ বছর জানুয়ারি থেকে ২০ শে জুলাই তারিখ পর্যন্ত ৮২৬ জন শিশু নানা ধরনের সহিংসতার শিকার হয়েছে, শিশুর প্রতি সহিংসতা নেই ক্রমবর্ধমান হার অত্যন্ত উদ্বেগজনক, কোয়ালিশন বিস্বাষ করে শিশুর প্রতি সহিংসতা বন্ধে সমাজের প্রতিটি স্তরের মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে, এ ক্ষেত্রে সরকারের প্রশাসন ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ভূমিকা অগ্রগণ্য, তাই চাইল্ড রাইট্স এডভোকেসি কোয়ালিশন বাংলাদেশের সব কটি জেলায় জেলা প্রশাসকের কাছে ১৪ টি সুপারিশমালা সহ স্বারক লিপি প্রদান করেছে।