সাতক্ষীরা ও কলারোয়ায় অধিকাংশ ভোট কেন্দ্র মহিলা ভোটারদের দখলে


635 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা ও কলারোয়ায় অধিকাংশ ভোট কেন্দ্র মহিলা ভোটারদের দখলে
ডিসেম্বর ৩০, ২০১৫ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

আব্দুর রহমান মিন্টু / আশরাফুল আলম :
সাতক্ষীরা ও কলারোয়া পৌরসভায় উৎসবমুখর পরিবেশে পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সকাল থেকে সাতক্ষীরা ও কলারোয়া পৌরসভার বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, পৌষের তীব্র শীত উপেক্ষা করে মহিলা ভোটাররা দীর্ঘ লাইন দিয়ে ভোট দিচ্ছেন। বেলা ১২ টা পর্যন্ত ভোট কেন্দ্র ছিল মহিলা ভোটারদের দখলে। পুরুষ ভোটারদের উপস্থিতি ছিল বেশ কম। তবে দুপুর গড়ার সাথে সাথে পুরুষ ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে আসতে শুরু করেছে।

কলারোয়া পৌরসভার ঝিকরা ভোট কেন্দ্রে সকাল ১০টা ২০ মিনিটে গিয়ে জানাগেছে ১৯৮৪ ভোটের মধ্যে ৩৯৮ ভোট পড়েছে। এর মধ্যে মহিলা ভোটারের সংখ্যাই বেশি।
সকাল ৯.৪০ গিয়ে গোপিনাথপুর ভোট কেন্দ্রে গিয়ে দেখাগেছে, ২২৮১ ভোটের মধ্যে ৪৪৩ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছে। বেলা ১০.৪৫ সময় শ্রিপতিপুর ভোট কেন্দ্রে গিয়ে দেখা গেছে, ২০৯৪ ভোটের মধ্যে ৭৯২ ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

02
কলারোয়া পৌরসভার মেয়র প্রার্থী আক্তারুল ইসলাম বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে মূরালীকাটি ভোট কেন্দ্রে দাঁড়িয়ে ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমকে জানান, দুই-একটি ভোট কেন্দ্রের বাইরে তার লোকজনের উপর হামলা হলেও ভোট কেন্দ্রের মধ্যে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিরাজ করছে। এভাবে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হলে তিনিই দ্বিতীয় বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হবেন। একই কেন্দ্রে দাঁড়িয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী  (আ’লীগের বিদ্রোহী) আরাফাত হোসেন অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আমিনুল ইসলাম লাল্টুর সমর্থকরা তার (আরাফাত হোসেনের) এজেন্টদেরকে ঝিকরা ভোট কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেয়নি।

এদিকে, সাতক্ষীরা পৌরসভায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশের মধ্যদিয়ে ভোট গ্রহন কাজ চলছে। বেলা পৌনে ২ টা পর্যন্ত কোথাও কোন ধরনের অপ্রিতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।
দুপুরে স্বতন্ত্রপ্রার্থী নাসিম ফারুক খান মিঠু ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমকে জানান, নিরপেক্ষ পরিবেশের মধ্যে ভোট চলছে। কোন ধরনের অনিয়মের খবর তার কাছে নেই।

01
সাতক্ষীরা পৌরসভার মেয়র প্রার্থী শাহাদাত হোসেন দুপুরে অভিযোগ করে সাংবাদিকদেরকে বলেন, সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি এমদাদ শেখ তার প্রতিদ্বন্দি স্বতন্ত্র প্রার্থী নাসিম ফারুক খান মিঠুর কাছ থেকে বিপুল পরিমান টাকা নিয়ে নৌকা প্রতিকের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। তিনি আরও অভিযোগ করে বলেন, সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি এমদাদ শেখ আওয়ামী লীগের বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে ধানের শীষের পক্ষে কাজ করছেন।
সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি এমদাদ শেখ অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, ভোট নিরপেক্ষ হচ্ছে। সাহাদাৎ হোসেনের অভিযোগ মিথ্যে। আওয়ামী লীগের বিপক্ষে অবস্থান নেওয়ার বিষয়টি মিথ্যে।

সাতক্ষীরা পৌরসভার রিটানিং অফিসার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এ এফ এম এহতেশামূল হক ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমকে বেলা পৌনে ২ টার দিকে জানান, পৌরসভার ৩১টি ভোট কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহন কাজ চলছে । কোন ধরনের অপ্রিতিকর ঘটনা এখনও ঘটেনি।

কলারোয়া পৌরসভার রিটানিং অফিসার আহম্মদ আলী ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমকে জানান, ঝিকরা কেন্দ্রের বাইরে স্বতন্ত্র প্রার্থী আরাফাত হোসেনের নির্বাচনী এজেন্ট আবু হরকে  প্রবেশ করতে দেয়নি বলে অভিযোগ করেছেন। কিন্তু তদন্ত করে দেখা গেছে ভোট কেন্দ্রের ৪০০ গজের ভিতরে এ ধরনের কোন ঘটনা ঘটেনি। কেন্দ্রের বাইরে কোন ঘটনা ঘটলে তাদের কিছুই করার থাকে না।