সাতক্ষীরা কোর্টে দুই অতিরিক্ত পিপি’র হাতাহাতি !


424 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা কোর্টে দুই অতিরিক্ত পিপি’র হাতাহাতি !
জুন ১, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল হক:
সাতক্ষীরা আদালত পাড়ায় মামলা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দুই অতিরিক্ত পিপি’র মধ্যে হাতাহাতি হয়েছে। বুধবার বেলা সাড়ে ১২টায় চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বারান্দায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মারপিটের অভিযোগ এনে অতিরিক্ত পিপি এড. শেখ মিজানুর রহমান সদর থানায় এজাহার দালিখ করেছেন।

অন্যদিকে অপর অতিরিক্ত পিপি এড. আব্দুল লতিফ মারপিটের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ২০ হাজার টাকা ঘুষ দাবী করেছিলো বলে তার সাথে বাক বিতন্ডা হয়েছে মাত্র। হাতাহাতির বিষয়টি সঠিক নয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার সাতক্ষীরা চীফ জুডিশিয়াল আদালতে ১০/১৬ মামলার শুনানি শুরু হয়। এ মামলার সরকারের পক্ষে পরিচালনা করেন অতিরিক্ত পিপি এড. শেখ মিজানুর রহমান, আর বিবাদী পক্ষে ছিলেন অন্য কোর্টের অতিরিক্ত পিপি এড. আব্দুল লতিফ। মামলা শুনানি চলাকালে এজলাসের মধ্যেই রাষ্ট্র ও বিবাদী পক্ষের দুই আইনজীবীর মধ্যে হুমকি-ধামকি শুরু হয়। এ বিষয়ে অতিরিক্ত পিপি এড. শেখ মিজানুর রহমান জানান, কোর্টের মধ্যে হুমকি দেওয়ার পরে আমি বের হলে এড. আব্দুল লতিফ আমাকে কোর্টের বারান্দায় প্রচন্ড মারপিঠ করে। পা দিয়ে আমার সমস্ত শরীরে বারান্দা ফেলে দাবাতে শুরু করে। এ সময় তার কাছে থাকা মামলার নথি ছিড়ে দেন বলে তিনি থানায় অভিযোগ করেন। তবে অতিরিক্ত পিপি আব্দুল লতিফ জানান, আমার মুহুরির মাধ্যমে মক্কেলের কাছে ২০ হাজার টাকা ঘুষ দাবী করেন। এ বিষয়ে আমি প্রতিবাদ করি। ফলে এজলাসে তীব্র বাকবিতন্ডা হয়। তিনি মারপিঠের কথা অস্বীকার করে বলেন মারপিঠের প্রশ্নই আসে না। এ বিষয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমদাদুল হক শেখ জানান, একটি এজাহার দেওয়া দিয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।