সাতক্ষীরা জেলা আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক কমিটির সভা


264 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা জেলা আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক কমিটির সভা
মার্চ ১৬, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
সাতক্ষীরা জেলা আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বেলা ১১টায় জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মোঃ মহিউদ্দিনের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে বক্তব্য রাখেন কমিটির উপদেষ্টা সাতক্ষীরা সদর ২ আসনের সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, তালা-কলারোয়া ১ আসনের সংসদ সদস্য এড.মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, পুলিশ সুপার চৌধুরী মঞ্জুরুল কবির পিপিএম (বার), জেলা পরিষদের প্রশাসক মুনসুর আহমেদ, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি এড.আবুল কালাম আজাদ।
সভায় মীর মোস্তাক আহমেদ রবি এমপি বলেন, ‘সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট হয় বা বিব্রতকর পরিস্থিতি পড়তে হয় এমন কোন কাজ করা যাবে না। কোন পক্ষ পাতিত্য না করে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সম্পন্ন করতে হবে। সন্ত্রাসী যে দলেরই হোক না কেন তাকে ছাড় দেওয়া হবে না। সকলের অংশ গ্রহণে অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে হবে।’
এড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ এমপি বলেন, ‘জেলা মাসিক আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সিদ্ধান্ত গৃহীত হলেও তার অগ্রগতি ও বাস্তবায়নের পদক্ষেপ গ্রহণ হয় না এবং এর অগ্রগতির প্রতিবেদন সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান পরবর্তী সভায় প্রেরণ করে না। সে বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের পরামর্শ দেন। তিনি বলেন এই মিটিং এ অবৈধ যানবাহন বন্ধের জন্য এক মাসের সময় বেঁধে দেওয়া হয়।’
পুলিশ সুপার চৌধুরী মঞ্জুরুল কবির পিপিএম (বার) বলেন, ‘নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলে শক্ত হাতে দমন করা হবে। কোন বিশৃঙ্খলা ঠান্ডা করা তো এক ঘন্টার ব্যাপার। বর্তমানে জেলার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সহনশীল আছে। তিনি আরো বলেন, ভারত-বাংলাদেশের যৌথ আলোচনায় আজ ভারত সরকার ফেনসিডিল উৎপাদন নিষিদ্ধ করেছে। আমি মনে করি ফেনসিডিল উৎপাদন বন্ধ হলে অপরাধ প্রবণতা কিছুটা হলেও কমবে। সবাই যার যার অবস্থান থেকে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করতে ভূমিকা রাখবেন।’
জেলা পরিষদের প্রশাসক মুনসুর আহমেদ বলেন, নির্বাচন পরবর্তী সময়ে স্পর্শকাতর জায়গা চিহ্নিত করে  নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করতে হবে। শহরের প্রাণ সায়ের খালের দুই ধার দিয়ে সরকারি সম্পত্তি নির্ধারণ করে কতটুকু পরিমাণ খাল খনন করতে হবে। সেটা আগেই নিশ্চিত করতে হবে।
সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি এড.আবুল কালাম আজাদ বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে সহিংসতা নিয়ন্ত্রণ করতে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। দলীয় ও বিদ্রোহী প্রার্থীদের নিয়ে যে সংঘর্ষ সেটি নিরসনে তাদের নিয়ে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করতে হবে।
সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আসাদুজ্জামান বাবু, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ্ আব্দুল সাদী, আশাশুনি উপজেলা চেয়ারম্যন এবিএম মোস্তাকিম, দেবহাটা উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল গণি, কলারোয়া উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ ফিরোজ আহমেদ স্বপন, জেলা কৃষক লীগের সভাপতি বিশ্বজিৎ সাধু, বিআরটির প্রকৌশলী তানভীর আহমেদ, প্যানেল মেয়র শফিক-উদ-দৌলা সাগর, মনোরঞ্জন মুখার্জী প্রমুখ।