সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটির সভা


127 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটির সভা
জুলাই ১২, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্বাস্থ্য বিভাগের দুর্নীতির সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবী

জেলা তথ্য অফিস ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ

স্টাফ রিপোর্টার ::

সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটির এক সভা ১২ জুলাই শুক্রবার সকাল ১০টায় দৈনিক পত্রদূত অফিসে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন কমিটির আহবায়ক মো. আনিসুর রহিম। সভায় সাতক্ষীরাবাসীর ২১ দফা দাবী আদায়ে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানানো হয়। সভায় সাতক্ষীরা জেলা স্বাস্থ্য বিভাগে দুর্নীতির ঘটনার সাথে জড়িত আসামীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবী জানানো হয়। একই সাথে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও সাতক্ষীরা ম্যাটসে কেনাকাটার দুর্র্নীতির সাথে জড়িতদেরও দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবী জানানো হয়। সভায় সম্প্রতি সাতক্ষীরা জেলা তথ্য অফিস ও সাতক্ষীরা জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। এছাড়া বিভিন্ন সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

সভা চলাকালীন সময়ে সাবেক এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শেখ মুজিবুর রহমান সভাস্থলে উপস্থিত হন এবং তাঁর সময়ে সাতক্ষীরা জেলার উন্নয়নে যে সমস্থ কর্মকান্ড পরিচালিত হয় সে সম্পর্কে আলোকপাত করেন। জেলা নাগরিক কমিটির পক্ষ থেকে ইঞ্জিনিয়ার শেখ মুজিবুর রহমানকে ২১ দফা দাবী সম্বলিত লিফলেট প্রদান করা হয়।

সভায় বক্তব্য রাখনে প্রফেসর আব্দুল হামিদ, ভয়েস অব সাতক্ষীরার সম্পাদক এম. কামরুজ্জামান, এড. শেখ আজাদ হোসেন বেলাল, আনোয়ার জাহিদ তপন, নিত্যানন্দ সরকার, শেখ সিদ্দিকুর রহমান, অপারেশ পাল, মধাব চন্দ্র দত্ত, এড. মনির উদ্দিন, এড. এবিএম সেলিম, এড. আল মাহামুদ পলাশ, আলী নুর খান বাবলু, জহুরুল কবির, আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।

সভায় নাভারণ-মুন্সিগঞ্জ রেললাইন নির্মাণ, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন, পর্যটন সম্ভাবনা কাজে লাগাতে যথাযত উদ্যোগ, সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুর্ণাঙ্গভাবে চালুসহ স্বাস্থ্য বিভাগে অনিয়ম দুর্নীতি বন্ধ, জেলায় শ্রমঘন বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলা, উপকূলীয় বেড়িবাঁধ সংস্কারসহ জলাবদ্ধতা নিরসন, দুটি পৌরসভার বিভিন্ন সমস্যা সমাধান, সাতক্ষীরা বাইপাস সড়ককে আলীপুর চেকপোস্ট পর্যন্ত সম্প্রসারণ ও শহরের পূর্বাংশের আশাশুনি সড়কের সাথে আরো একটি বাইপাস সড়ক নির্মাণসহ ঢাকার সাথে জেলার দুরত্ব কমিয়ে আনার পদক্ষেপ গ্রহণ, ১৩২ কেভি নতুন একটি বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন, মানুষের চাহিদা ও প্রয়োজনের কথা বিবেচনা করে জেলার বিভিন্ন এলাকায় চলাচলরত ইজিবাইক, ব্যাটারী চালিত ভ্যান, ইঞ্জিনভ্যান, নসিমন করিমন, আলম সাধু, ভটভটির আধুনিকায়নের ব্যবস্থাসহ চালকদের প্রশিক্ষণ ও চাঁদাবাজি ছাড়া নিবিঘ্নে চলাচলের ব্যবস্থাসহ ২১ দফা দাবী সম্বলিত লিফলেট বিতরণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

#