সাতক্ষীরা পৌরসভার আনাছে কানাছে ময়লার কারখানা !


187 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা পৌরসভার আনাছে কানাছে ময়লার কারখানা !
আগস্ট ২৩, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

ইব্রাহিম খলিল :
ডেঙ্গু আতংকে সারা দেশ । পরিত্রানের জন্য চালানো হচ্ছে বিভন্ন অভিযান ও সচেতনা মূলক কার্যক্রম । সারা দেশের ন্যায় সাতক্ষীরায় ও চলছে এই কার্যক্রম । প্রতিদিন দেখা মিলছে বিভিন্ন আলোচনা সভা লিফলেট বিতরণসহ নানা প্রচার প্রচারণা। কিন্তু এখনো সচেতনা ফিরিনি সাতক্ষীরার মানুষের মধ্যে । বিভিন্ন জায়গায় দেখা মিলেছে প্রচুর ময়লা আবর্জনা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ । যেখান থেকে জন্ম নিচ্ছে এডিস মশা । আর বাড়ছে ডেঙ্গুগুর রোগীর সংখ্যা ।

শুক্রবার রাতে শাহানার খাতুন (৩৭) ও বৃহস্পতিবার বিকালে আলমগীর গাজী (১৪) নামের দুইজন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে।

এদিকে শহরের ২ নাম্বার ওয়ার্ডের রিয়াছাত উল্লাহর বাড়ির পেছনের প্রায় ৪ শতক জমি এখন ময়লার কারখানায় পরিনিত । দেখার কোন মানুষ নেই । এই খান থেকে জন্ম নিচ্ছে এডিস মশা এমন অভিযোগ গ্রামের সাধারণ মানুষে।

স্থানীয় বাসিন্দা মিজানুর রহমান বলেন, এখানের অবস্থা দীর্ঘদিন ধরে এমনি । এদিকে কারো কোন নজর নেই। আমরা অনেক আতংকে আছি । আমরা চাই এই জায়গা টা তাড়াতাড়ি পরিস্কার করা হোক । ২ নাম্বার ওয়ার্ডের কাউন্সিলার সৈয়দ মাহমুদ পাপা বলেন,আমরা দুই একদিনে মধ্যে পৌর সভার নিয়োগপ্রাপ্ত পরিচ্ছন্ন কর্মী দিয়ে এই জায়গা থেকে ময়লা অপসারণ করবো। তবে শুধু ২ নাম্বার ওয়ার্ডের রিয়াছাত উল্লাহর বাড়ির পেছনে ময়লার কারখানা নয় শহরের আনাছে কানাছে এমন শত শত ময়লার কারখানা রয়েছে, পানি জমায় সেখান থেকে জন্ম নিচ্ছে এডিস মশা। যেগুলো অপসারণ না করলে শহরে বেড়ে যাবে এডিস মশা।

সেগুলো কি অপসারণ করা হবে ? এই বিষয় পৌর সভার কি কোন উদ্দ্যোগ আছে ? এ বিষয় জনার জন্য সাতক্ষীরা পৌর মেয়র তাসকিন আহমেদ চিশতির সাথে যোগাযোগ করলে তার মোবইল ফোনটি বন্ধ থাকায় তার তাসে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি ।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল বলেন, আমরা ইতিমধ্যে শহরে বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে ডেঙ্গুর বিষয় নিয়ে সকলকে সচেতন করেছি। আর শহরে যেসব জায়গায় ময়লা ও পানি জমে ডেঙ্গুর জম্ম হচ্ছে মেয়র মহদয়কে নির্দেশ দিয়েছি সেগুলো পবসারণ করাতে।

#