সাতক্ষীরা পৌর আ’লীগের সভাপতি সায়ীদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজী মামলা দায়ের


344 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা পৌর আ’লীগের সভাপতি সায়ীদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজী মামলা দায়ের
এপ্রিল ২৮, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
সাতক্ষীরা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আবু সায়ীদসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুরাতন সাতক্ষীরার জমি দখলকে কেন্দ্র করে সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মহিবুল হাসানের আদালতে মামলা দায়ের করে। বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)কে এজাহার হিসেবে গণ্য করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করেছেন।

মামলার আসামীরা হলো পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আবু সায়ীদ, পুরাতন সাতক্ষীরার মৃত ইয়াহিয়ার পুত্র হারুন, রজব আলীর পুত্র আইয়ুব আলী, মৃত আইন দফাদারের পুত্র নওশের আলী, রহমান মাস্টারের পুত্র মো. ইব্রাহিম, পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক রাশেদুজ্জামান রাশি, ইটাগাছার আব্দুর রশিদ ও আলমগীর হোসেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, সিরাজুল ইসলামের পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া ৩ বিঘা জমি নিয়ে প্রতিবেশী আইন দফাদারের ছেলে নওশের আলীর সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিলো। সিরাজুল ইসলাম সাতক্ষীরা আদালতে একটি মামলা দায়ের করে। আদালত মামলাটি নিম্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত উভয়পক্ষ কে শান্তিপূর্ণ অবস্থানে থেকে ওই জমিতে না যাওয়ার নিদের্শ দেন। কিন্তু জমি দখলে রাখতে হলে আসামীরা ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে।

অথচ ২৭ এপ্রিল সকাল ১০টার দিকে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সাঈদের নেতৃত্বে রাশিদুজ্জামান রাশি, বেকারি রশিদ, দর্জি সিরাজুল ও নওশেরের জামাতা আলমগীরসহ ৩০/৪০জন ব্যক্তি দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে ওই জমি দখল করতে যায়। এ সময় তারা ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করেন। তারা ওই জমি দখলের জন্য প্রাচীর নির্মাণ করে। বাড়িতে কোন কোন পুরুষ লোক না থাকায় মহিলারা বাধা দিতে গেলে সায়ীদ ও তার লোকজন আমার বৃদ্ধা মা রাবেয়া বেগম (৭০), বোন পুটি (৩৫), ভাবি মোমেনা বেগম (৪৫) ও আমার স্ত্রী ফরিদাকে (৩০) ব্যাপক মারপিট করে। আমি সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে সায়ীদের লোকজন আমাকেও মারপিট করে। এরপর পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মিমাংসা করার জন্য বললে তারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। পুলিশ চলে যাবার পর আবু সাঈদসহ কয়েকজন আমাদের বাড়িতে গিয়ে ওই জমির আসল কাগজপত্র ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে ও হুমকি দিয়ে বলে ‘তুই জজ সাহেবের গাড়ি চালাস না, দেখি কোন জজ তোকে রক্ষা করে। রাস্তায় পেলে তোর হাত পা ভেঙে দেবো। পারলে তোর জজ সাহেবকে ঠেকাতে বলিস। আদালত যদি তোর পক্ষে রায় দেয় তখন জমি নিবি। এখন আমরা বেড়া দেবো পারলে ঠেকা। আর যদি আমার নামে কোথাও কোন নালিশ করিস তাহলে তোকে হত্যা করবো। যে বাবা থাকে ডেকে নিয়ে আয়।’ এজাহারে আরো বলা হয়,এ সময় তারা বাদীর স্ত্রীর৩০ হাজার টাক মূরে‌্যর স্বর্ণের চেইন কেড়ে নেয়। এ সময় তারা চাঁদা না পেয়ে পেট্রোল দিয়ে আগুন ধরিয়েও দেয়। এ ঘটনায় দন্ডবিধি ১৪৩, ৪৪৭,৪৪৮, ৩২৩,, ৩২৫, ৩০৭, ৩৭৯, ৩৮৫, ৩৫৪, ৪৩৬ ও ৫০৬ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়।