সাতক্ষীরা পৌর দিঘী থেকে তুফান কোম্পানির ছেলে মানষিক প্রতিবন্ধী মিয়ারাজের লাশ উদ্ধার


739 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা পৌর দিঘী থেকে তুফান কোম্পানির ছেলে মানষিক প্রতিবন্ধী মিয়ারাজের লাশ উদ্ধার
জুলাই ২৩, ২০১৫ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
সাতক্ষীরা পৌরসভার দিঘী থেকে মানষিক প্রতিবন্ধী আব্দুল মোকাজ্জেম মিয়ারাজ (৬৫) এর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৭ টার দিকে স্থানীয় লোকজন পৌর দিঘীতে লাশ ভাসতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে তার মরাদেহ উদ্ধার করে। তিনি সাতক্ষীরা শহরের রাধানগর গ্রামের মৃত ডা: মোসলেমের  (তুফান কোম্পানীর ছেলে) ছেলে ও সাতক্ষীরার বিশিষ্ট সমাজ সেবক ডা: আবুল কালাম বাবলার বড় ভাই। পুলিশের ধারনা, বুধবার রাতের কোন এক সময় সবার অজান্তে পৌর দিঘীতে পড়ে পানিতে ডুবে তার মৃত্যু হয়েছে।
ডা: আবুল কালাম বাবলা জানান, তার বড় ভাই মিয়ারাজ মানষিক প্রতিবন্ধী ছিলেন। জেলা শহরের প্রায় সবাই তাকে চেনেন। প্রতিদিন সন্ধ্যায় সে বাড়িতে যায়। বুধবার রাতে বাড়িতে না ফেরায় তিনি শহরের বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি করে তার কোন সন্ধান পাননি। রাতে সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি’কে তিনি নিখোঁজের বিষয়টি জানিয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে পৌছে তার মরাদেহ দেখতে পান। তিনি তার বড় ভাই মরহুম মিয়ারাজের জন্য সকালের কাছে দোয়া চান।
এদিকে, সাতক্ষীরা পৌর দিঘীতে লাশ ভাসার খবরে এলাকার শত শত মানুষ সেখানে ছুটে যায়। মানুষের ভীড় ঠেলে পুলিশ লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে।
সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি এমদাদ শেখ জানান, রাতে ডা: আবুল কালাম বাবলা তাকে নিখোঁজের বিষয়টি জানিয়েছিলেন। সকালে খবর পেয়ে পুলিশ তার মরাদেহ উদ্ধার করেছে। তার শরীরে কোন জখম বা আঘাতের চিহ্ন নেই। মিয়ারাজ মানষিক প্রতিবন্ধী। পুলিশের ধারা বুধবার রাতের কোন এক সময় পৌর দিঘীতে পড়ে পানিতে ডুবে তর মৃত্যু হয়েছে। এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে।